স্বর্গীয় ফলের ‘কেরামতি, মিলবে হাজারো রোগমুক্তি!

143

লাইফস্টাইল ডেস্ক: বেদানা বা ডালিমকে স্বর্গীয় ফল বলা হয়। কারণ এর মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধে জাদুকরি গুণাগুণ। বেদানা সারাবছর বাজারে পাওয়া যায়। আপেলের মতো ডালিমও রোগীল উপকারী ফল হিসেবে খু্বই জনপ্রিয়। বেদানা, ডালিম, আনার সবই এক রকমেরই ফল। বেদানা যেমন সুন্দর দেখতে লাল রঙের হয়, তেমন খেতেও খুব সুস্বাদু হয়। বেদানার রস শরীরের পক্ষে খুব উপকারি। বেদানা বা ডালিম স্বাস্থ্যের পক্ষে অত্যন্ত  উপকারী।

আসুন জেনে নেই বেদানার স্বাস্থ্যগুন-

ব্রেন ডিজিজ থেকে দূরে রাখে: বেদনায় উপস্থিত নানাবিধ উপকারী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট শরীরে প্রবেশ করার পর ব্রেন পাওয়ার বৃদ্ধি পেতে শুরু করে। ব্রেন সেলের ক্ষমতা এতোটা বেড়ে যায় যে মস্তিস্কঘটিত রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা প্রায় থাকেনা বললেই চলে।

ভিটামিন ঘাটতি দূর হয়: বেদানায় প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন ও ভিটামিন রয়েছে। বেদানা খেলে শরীরে রক্তের পরিমাণ বৃদ্ধি করে। শরীর সচল রাখতে যেসব ভিটামিন দরকার তার সবগুলো উপাদান বেদানায় রয়েছে।

পেটের রোগ ভিড়তে দেয় না: অনেকের হজম জনিত বিভিন্ন পেটের রোগ রয়েছে। সেগুলো দূর করে পাকস্থলির সক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে বেদানা। শুধু বেদানা নয় এর পাতার চা খেলেও একই রকম উপকার পাওয়া যায়।

হার্টের ক্ষমতা বাড়ায়: হার্ট অ্যাটাক বা স্ট্রোকের মতো মারণ রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা কমাতে সাহায্য করে বেদানা। বেদানায় উপস্থিত অ্যান্টিঅক্সিডেন্টও নানাভাবে হার্টের খেয়াল রাখতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে।

চুল পড়া রোধ করে বেদানা: যারা মাথার চুল নিয়ে চিন্তিত তাদের ভরসা বেদানা। চুল পাড়া রোধ করতে চাইলে এখনই খাওয়া  শুরু করুন বেদানার রস। দেখবেন চুল পড়ার হার কমে যাবে। সেই সঙ্গে চুলের সৌন্দর্য্যও কয়েকগুন বেড়ে যাবে।

কৃমিমুক্ত রাখবে বেদানা: ডালিম গাছের শেকড় কৃমিনাশক হিসেবে কাজ করে। এটি আপনার পেটে কৃমির বিরুদ্ধে লড়বে।

গর্ভপাত রুখবে বেদানা: অনিয়ন্ত্রিত গর্ভপাত রোধে ডালিমের অপার গুণ রয়েছে। বেদানায় উপস্থিত পুষ্টিগুনে আপনার গর্ভপাত হওয়ার হার শূন্যের কোটায় নিয়ে আসতে পারে। এটি শরীর থেকে রক্তক্ষরণের সমস্যা অত্যন্ত সহজে মেটায়।

এ ছাড়াও বেদানা বা ডালিমের খোসায় এমন উপকারী পদার্থ আছে যা খেলে আমাশয় দূর করে। আঘাতের ফলে রক্তপাত হলে বা নাক দিয়ে রক্ত পড়লে বেদানা অব্যর্থ ওষুধ হিসিবে কাজ করে।

x