হুজুগে বিয়ে, ৫ মাসও টিকল না পরীমনির সংসার!

0 23

বিনোদন ডেস্ক: ঢালিউডের আলোচিত নায়িকা পরীমনির বিয়ে হয়েছে মাত্র ৩ টাকা দেনমোহরে! বিয়ের পাঁচ মাস পেরিয়েও গেল, পরীমনির স্বামী বা সংসারের কোনো খবর মিলছে না। এমনকি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও নেই তাদের যুগল কোনো ছবি। ঘনিষ্ঠ এক সূত্র মতে, নির্মাতা কামরুজ্জামান রনির সঙ্গে পরীর কোনো সম্পর্ক এখন নেই।

দেশের প্রথম সারির একটি গণমাধ্যমের পক্ষ থেকে যোগাযোগ করা হলে স্ত্রী পরীমনি বা দাম্পত্য জীবন নিয়ে কোনো কথা বলতে চাননি কামরুজ্জামান রনি। বিয়ে ভেঙে গেছে কি না, জানতে চাইলেও তিনি ছিলেন নিশ্চুপ। পরীমনির ঘনিষ্ঠ অনেকেই নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেছেন, পরীমনি আসলে হুজুগে বিয়েটা করেছেন। বিয়ের পর কয়েক দিন তাকে স্বামীর সঙ্গে দেখা গেছে। তারপর আর কোনো খবর নেই।

এদিকে ঈদুল আজহায় সহকারী শিল্পীদের জন্য এফডিসিতে কোরবানি দিয়ে নিজ হাতে সবারই মাংস বিতরণ করেছেন পরী। গত কয়েক বছর কোরবানির মাংস বিতরণের সময় তার সঙ্গে থাকতেন তার প্রেমিক। কিন্তু বিয়ের পর প্রথম কোরবানিতে এফডিসিতে তার সঙ্গে তার বরকে দেখা যায়নি।

এতে বিয়ে ভেঙে যাওয়ার সন্দেহ আরও ঘনীভূত হয়েছে সবার মধ্যে। চলচ্চিত্রসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের প্রতিক্রিয়া, ৩ টাকার বিয়ে কি তবে ৫ মাসও টিকল না!

বিয়ের আগে পরীমনি বলেন, মানুষ যখন কাউকে আই লাভ ইউ বলে, তোমাকে আমি চাই— এটা কিন্তু তাকে ছাড়ার জন্য নিশ্চয় বলা হয় না। কিন্তু এখন বিয়ের শুরুতেই বলে দেয়া হয়, দেনমোহর কতো হবে? ছাড়াছাড়ি হয়ে গেলে এগুলো আবার দিতে হবে। এগুলো কিন্তু একটা মানসিক চাপ হিসেবে মাথায় ঢুকে যায়। ছাড়াছাড়ি নিয়ে চিন্তার চেয়ে আমার কাছে বন্ধনটা খুব জরুরি।

কামরুজ্জামান রনি নাগরিক নাট্য সম্প্রদায়ের সদস্য ও নির্দেশক। এছাড়া তিনি অভিনেত্রী ও নির্মাতা হৃদি হকের ‘১৯৭১: সেই সব দিন’ ছবির সহকারী পরিচালক হিসেবে কাজ করছেন। ওই ছবিতে অভিনয় করছেন পরীমনি।

সেখানে কাজ করতে গিয়ে নিজেদের মধ্যে বোঝাপড়া তৈরি হয় পরী-রনির। একপর্যায়ে রনিই বিয়ের প্রস্তাব দেন পরীকে। মনে মনে রনির প্রতি দুর্বল পরী সেই প্রস্তাব এড়াতে পারেননি।

চলতি বছরের ১০ মার্চ পরী রাজধানীর রাজারবাগ এলাকার এক কাজী অফিসে কামরুজ্জামান রনিকে বিয়ে করেন। বিয়ের পর স্বামীর সঙ্গে ফেসবুকে ছবিও পোস্ট করেন পরীমনি। ওই পোস্টে লিখেন, ‘জানেন, আমরা তিন টাকায় বিয়ে করেছি! কিউট না? আমাদের বিয়ের দেনমোহর তিন টাকা’

Leave A Reply

Your email address will not be published.