২০০,০০০ বর্গকিলোমিটার এলাকা জুড়ে ‘যুদ্ধে’র মহড়া শেখানো হবে সেনাবাহিনী

0 642

game-armyআন্তর্জাতিক ডেস্ক : ইরানের সেনাবাহিনী দেশটির দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে বিশাল সামরিক মহড়া করতে যাচ্ছে বলে খবর দিয়েছেন একজন উচ্চপদস্থ সেনা আধিকারিক। তিনি বলেছেন, সেনাবাহিনীর সমর প্রস্তুতি শক্তিশালী করার লক্ষ্যে এই মহড়া চালানো হবে।

ইরানের স্থলবাহিনীর নয়া কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল কিয়োমার্স হায়দারি রাষ্ট্রীয় সম্প্রচার সংস্থা আইআরআইবি’কে বলেছেন, আজ রবিবার থেকে ২০০,০০০ বর্গকিলোমিটার এলাকা জুড়ে তিনদিনব্যাপী এই মহড়া শুরু হবে। তিনি আরও বলেন, এই মহড়ার তিনটি কৌশলগত পর্যায় থাকবে এবং এখানে অত্যাধুনিক সমরাস্ত্র ব্যবহার করা হবে। এই ধরনের সমরাস্ত্র এর আগের মহড়াগুলোতেও পরীক্ষা করা হয়েছে উল্লেখ করে জেনারেল হায়দারি বলেন, ইরানের পদাতিক বাহিনী এসব অস্ত্রের গুণগত মান উন্নত করেছে। ফলে আসন্ন মহড়ায় এসব যুদ্ধাস্ত্রের নয়া পাল্লা ও নির্ভুলভাবে আঘাত হানার ক্ষমতা পরীক্ষা করা হবে।

ইরানের স্থলবাহিনীর কমান্ডার বলেন, তরুণ সেনা আধিকারিকদের সামরিক কৌশল পর্যবেক্ষণ করাও হবে আসন্ন মহড়ার অন্যতম প্রধান উদ্দেশ্য। ক্ষুদ্র ও মাঝারি পাল্লার বেশ কয়েক ধরনের ক্ষেপণাস্ত্রসহ প্রায় সব ধরনের সমরাস্ত্র তৈরিতে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করেছে ইরান। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে নির্ভুলভাবে শত্রুর অবস্থানে এসব অস্ত্রের আঘাত হানার বিষয়টিও নিশ্চিত করা হয়েছে। তবে একইসঙ্গে ইরান ঘোষণা করেছে, মধ্যপ্রাচ্যের কোনও প্রতিবেশী দেশে হামলা চালানোর ইচ্ছে তেহরানের নেই। তবে কেউ ইরানে হামলা চালানোর ধৃষ্ঠতা দেখালে তাকে সমুচিত জবাব দেওয়ার জন্য তেহরানের সার্বক্ষণিক প্রস্তুতি রয়েছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.