২০২১ সালে ঘর ভেঙেছে যাঁদের

২২০

চিরদিন কাহারও সমান নাহি যায়—এ বচন যেন শাশ্বত। জীবনে উত্থান-পতন আছে, থাকবে। একসময় যে বন্ধন প্রকাশ্য, সে বন্ধনই প্রকাশ্যে ছিড়ে যেতে পারে। বলিউড যুগলদের ক্ষেত্রেও একই। ২০২১ সালে বেশ কয়েক জন তারকার বিবাহবিচ্ছেদ হয়েছে।

এমন খবরে আহত হন তারকাদের অনুরাগীরাও। নানা কারণেই সংসার ভাঙতে পারে। আসুন, এক ঝলকে কয়েক জনের গল্প শোনা যাক—

আমির খান ও কিরণ রাও

সুদীর্ঘ ১৫ বছরের বিবাহিত জীবনের ইতি টানের আমির খান ও কিরণ রাও। ভক্তরা এ খবরে হতাশ হন। সামাজিক পাতায় যৌথ বিবৃতির মাধ্যমে এ যুগল বিচ্ছেদের ঘোষণা দেন। এ যুগলের ঘরে আজাদ নামে পুত্রসন্তান আছে। এর আগে রীনাকে ডিভোর্স দিয়েছিলেন আমির।

সামান্থা ও নাগা চৈতন্য

এ বছর দক্ষিণ ভারতীয় তারকা নাগা চৈতন্য ও সামান্থা রুথ প্রভুর বিবাহবিচ্ছেদ হয়। অবশ্য যৌথ বিবৃতির আগে থেকেই বিচ্ছেদের গুঞ্জন ছিল। ২০১৭ সালে বিয়ে করেন এ দম্পতি।

হানি সিং ও শালিনী সিং

জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী হানি সিং তাঁর শৈশবের বান্ধবী শালিনীকে বিয়ে করেন ২০১১ সালে। শালিনী অভিযোগ করেন, হানি তাঁকে মারধর করতেন। অবশেষে আগস্টে তাঁদের বিচ্ছেদ হয়। তাঁদের বিবাহিত জীবন ছিল ১০ বছরের। দশম বিবাহবার্ষিকীর ঠিক কয়েক দিন আগে তাঁদের বিচ্ছেদ হয়।

করণ মেহরা ও নিশা রাওয়াল

টেলিভিশন তারকা করণ মেহরা ও নিশা রাওয়ালের বিচ্ছেদের খবরে ভক্তরা মুষড়ে পড়েন। ২০১২ সালে এ যুগল বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। বিচ্ছেদের পর একে অন্যের প্রতি নানান অভিযোগ তোলেন এ দম্পতি।

কীর্তি কুলহরি ও সাহিল সেহগাল

২০১৬ সালে বিয়ে করেন কীর্তি কুলহরি ও সাহিল সেহগাল। ২০২১ সালের এপ্রিলে স্বামীর কাছ থেকে আলাদা হওয়ার ঘোষণা দেন কীর্তি কুলহরি। কীর্তি একটি ছোট নোট সামাজিক পাতায় শেয়ার করেন, যেখানে বলা ছিল তাঁরা যৌথ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তাঁদের সংসার টিকেছিল পাঁচ বছর।

Comments are closed.