বাংলাদেশ এখন আর দরিদ্র রাষ্টের কাতারে নেই বলেছেন পলক

0 408

রাজশাহী অফিস: তথ্য যোগাযোগ ও প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, বাংলাদেশ এখন আর দরিদ্র রাষ্টের কাতারে নেই। বিশ্বের উন্নত দেশের সঙ্গে তাল মিলিয়ে বাংলাদেশ এগিয়ে চলেছে। বর্তমান সরকার ক্ষমতায় থাকলে সবসময়ই এ গতি ধাবমান থাকবে। রবিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে রাজশাহীতে বঙ্গবন্ধু হাই-টেক পার্ক প্রকল্পের আওতায় এ. আর. ভি.আর ও এম.আর ল্যাব উদ্বোধন শেষে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভবনে এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

তথ্য যোগাযোগ ও প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘ডিজিটাল বাংলাদেশে একটি নতুন দিগন্তের উন্মোচন হলো। আমাদের দায়িত্ব ছিল প্ল্যাটফর্ম তৈরী করে দেওয়া, এমন ল্যাব তৈরী করে দেওয়া সেটা আমরা করে দিয়েছি। এখন বসে বসেই বিশ্ব জয় সম্ভব। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এদেশের তরুণ ছাত্র জনতার উপর বিশ্ব জয়ের এ দায়িত্ব অর্পন করেছেন ‘

প্রতিমন্ত্রী শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘বর্তমান বিশ্বে সবচেয়ে সম্ভাবনাময় প্রযুক্তি হচ্ছে অকমেনটরি রিয়ালিটি, ভার্চুয়াল রিয়ালিটি ও মিক্স রিয়ালিটি। এমন প্রযুক্তি সব জায়গায় পরিবর্তন আনবে। পুরো বিশ্ব এখন এগিয়ে যাচ্ছে , বাংলাদেশ যেন কোনভাবে পিছিয়ে থাকতে না পারে, বিশ্বের দরবারে নেতৃত্ব দিতে পারে সেজন্য রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে অকমেনটরি রিয়ালিটি, ভার্চুয়াল রিয়ালিটি ও মিক্স রিয়ালিটি সম্পূর্ণ ল্যাব তৈরী হলো। আমাদের তরুণ প্রজন্ম এই ল্যাবটি ব্যবহার করে নিজেরা যেমন নিজেদের পায়ে দাঁড়াবে তেমনি বাংলাদেশের যে প্রযুক্তি নির্ভর অর্থনীতি শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দ্রুতগতিতে এগিয়ে যাচ্ছে সেখানেও আমরা সফল হবো।’

বঙ্গবন্ধু হাই-টেক পার্ক বিষয়ে তিনি বলেন, ‘তোমরা সঠিক তথ্য-প্রযুক্তির ব্যবহার করা জানবে। তোমাদের জন্য নতুন প্ল্যাটফর্ম তৈরি করতেই সারা দেশে ২৮টি হাইটেক পার্ক নির্মাণ করা হবে। এক একটি হাইটেক পার্কে তোমাদের মতো শিক্ষার্থীরাই কাজ করবে। রাজশাহীর মাটিতে প্রায় ২৫০ কোটি টাকা ব্যয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদেরকে শেখ মুজিব হাই-টেক পার্ক উপহার দিয়েছেন। সেখানে প্রায় ১৪ হাজার তরুণ-তরুণীর কর্মসংস্থান হবে। সেই তরুণ তরুণী আমাদের দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে।’

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, ‘বাংলাদেশের সফল রাষ্ট্র নায়ক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গত ১০ বছর আগে আমরা ভাবতে পারিনি এখানে চমকালো সুন্দর হাইটেক পার্ক তৈরি করা হবে। এই হাইটেক পার্ক রাজশাহীর আইকন হিসেবে পরিচিত লাভ করবে।’

অনুষ্ঠানে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আব্দুস সোবহানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহা ও বঙ্গবন্ধু হাই-টেক পার্কের প্রকল্প পরিচালক একেএম ফজলুল হক। আমন্ত্রিত অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম সেখ, বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ওসমান গনি তালুকদার প্রমুখ। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিটি সেন্টারের পরিচালক অধ্যাপক খাদেমুল ইসলাম মোল্লা।

বিডি সংবাদ টোয়েন্টিফোর ডটকম/

Leave A Reply

Your email address will not be published.