থাইল্যান্ড – সরকার ধানের কম দামে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের জন্য ক্ষতিপূরণ দিয়েছে

15

থাইল্যান্ডে ধানের ক্রয়মূল্য ব্যাপকভাবে কমে যাওয়ায় কৃষকদের ক্ষতিপূরণ প্রদান করছে সরকার। দীর্ঘস্থায়ী বন্যা ও রপ্তানি হার হ্রাসের কারণে প্রতি কেজি ধানের মূল্য কমে গেছে ৫ বাত, যেখানে এক প্যাকেট নুডুলসের দাম মাত্র ৭ বাত। থাইল্যান্ডে অনেকদিন ধরেই চলছে বন্যা, যার ফলে দেশটির রপ্তানি হার অনেক কমে গেছে। চালের দামের তীব্র হ্রাসের কারণে ৩ বছরের ধানের মূল্য বীমা প্রকল্প অনুযায়ী থাই সরকার ৪.৬৯ মিলিয়ন পরিবারকে মোট ৮৯ মিলিয়ন বাত ক্ষতিপূরণ প্রান করছে। সংবাদ সূত্র: A24 News Agency

নাখোন নায়োক ডাউনটাউনের কৃষি ব্যাংক এবং কৃষি সংস্থার সহকারী ব্যবস্থাপক কিত্তিপন পানচান বলেন যে, ”এই শাখায় আমরা গত ৯ই নভেম্বর ৮১০ টি হিসাবে মোট ১৯.৮ মিলিয়ন বাত প্রদান করেছি। যদিও এখনও অনেক আছে আর তাদের সংখ্যা হাজার হাজার।”

খাও ফ্রা উপজেলার নাখোন নায়োকের কৃষক বুনমি মাংসা তুলে ধরেন তাদের দুরাবস্থার কথা, ”আমি এখানে আমার অ্যাকাউন্ট হালনাগা করতে এসেছি, যাতে তারা ক্ষতিপূরণ দিলে সে অর্থ পেতে পারি। ধানের দাম খুবই কম আর আমারে অনেক খরচ হয়েছে। গত বছর প্রতি বালতি ধানের দাম ছিলো ৮০ বাত, যা এ বছর ৬০ বাতে নেমে এসেছে। অনেক কমেছে কিন্তু সারের দাম আবার বেশি।

এখন এই টাকাটা কিছুটা হলেও সাহায্য করবে, কিছু না পাওয়ার চেয়ে ভালো।” উইতুন পুতাপানইয়া নামের আরেক কৃষক জানান, ”আমি আমার অর্থ পেয়েছি, যে পরিমান বলা হয়েছিলো ঠিক সেটাই। আমি নুতন ফসল ফলাতে এ অর্থ খরচ করবো। আমরা ইতিমধ্যে নুতন মৌসুমের কৃষির জন্য সেচ কাজ শুরু করে দিয়েছি ।”

থাই সরকার ইতিমধ্যে চলতি মাসের ৯ তারিখে কৃষকদের বীমা প্রকল্পের প্রথম অংশ বাবদ ১১ মিলিয়ন বাত পরিশোধ করেছে।

x