অবশেষে শ্রীদেবীর মরদেহের ছাড়পত্র দিলো দুবাই পুলিশ

0 708

আলমগীর,বিনোদন :
অবশেষে শ্রীদেবীর মরদেহ ভারতে নিয়ে আসার ছাড়পত্র দিলো দুবাই পুলিশ। অনেক জটিলতা পেরিয়ে আজ (২৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে এ বিষয়ে প্রয়াতর স্বজনদের কাছে চিঠি হস্তান্তর করেছে দুবাই পুলিশ বিভাগ।

ধারণা করা হচ্ছে মঙ্গলবার (আজ) সন্ধ্যায় বিশেষ জেট বিমানে করে দুবাই থেকে ভারতের উদ্দেশে উড়াল দিতে পারে এই মহাতারকার মরদেহ।
দুবাইয়ের ভারতীয় কনসুলেট জেনারেলের অফিশিয়াল টুইটার পেজ থেকে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। এ মুহূর্তে লাশ গ্রহণ করতে দুবাইয়ে অবস্থান করছেন শ্রীদেবীর স্বামী বনি কাপুর ও তার পুত্র অর্জুন কাপুর।
ভারত ও দুবাইয়ের সংবাদমাধ্যমগুলো এ তথ্যগুলো জানায়।
এদিকে শ্রীদেবীর মৃত্যুর কারণ নিয়ে যথেষ্ট জলঘোলা হয়েছে গেল দু’দিন। আজ সকালে বাবা বনি কাপুরের পাশে থাকার জন্য দুবাইতে উড়ে যান ছেলে অর্জুন কাপুর। এরমধ্যে গুঞ্জন উঠে শ্রীদেবীর মৃত্যুর কারণে বনি কাপুরের পাসপোর্ট জব্দ করে দুবাই পুলিশ। এটাও বলা হয়, শ্রীদেবীর মরদেহ ঠিক কবে নাগাদ দুবাই পুলিশের হাত থেকে মুক্ত হয়ে ভারতে পৌঁছাবে- সে বিষয়ে অনিশ্চিত।
তবে সেসব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটলো আজ, ২৭ ফেব্রুয়ারি দুপুর নাগাদ।

দুবাইয়ের একটি বিলাসবহুল হোটেলের বাথরুমে ২৪ ফেব্রুয়ারি স্থানীয় সময় রাত ১১টার দিকে শ্রীদেবীর মৃত্যু হয়। পরিবারের পক্ষ থেকে বলা হয়, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে তার। আমিরাতের আইন অনুসারে হাসপাতালের বাইরে যেকোনও মৃত্যু হলেই সেখানে ময়নাতদন্ত বা ফরেনসিক অনুসন্ধান বাধ্যতামূলক। সেই প্রক্রিয়ায় অন্তত ২৪ ঘণ্টা সময় লাগে বলেই শ্রীদেবীর পরিবার চাওয়া সত্ত্বেও তার মরদেহ ২৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ভারতে নিয়ে আসা সম্ভব হয়নি।

পরিবারের পক্ষ থেকে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর কথা বলা হলেও পরবর্তী সময়ে হোটেলের বাথটাবে ডুবে মৃত্যুর তথ্য উঠে আসে ময়নাতদন্ত রিপোর্টে। দুবাইয়ের খালিজ টাইমস ও গালফ নিউজ তাদের প্রতিবেদনে জানিয়েছে, শ্রীদেবীর ময়নাতদন্ত রিপোর্টে বাথটাবের পানিতে ডুবে মৃত্যুর কথাই বলা হয়েছে। রক্তে মিলেছে অ্যালকোহল। তবে এখনও এই মৃত্যুর পেছনে কোনও ‘ক্রিমিনাল মোটিভ’ বা অপরাধমূলক উদ্দেশ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি।
বলিউডের অন্যতম অভিনেত্রী শ্রীদেবী। কোনও সুনির্দিষ্ট নায়কের পৃষ্ঠপোষকতা ছাড়াই অনেক সিনেমা ব্যবসা-সফল হয়েছিলো তার অভিনয় দক্ষতায়। তাকে বলা হয় বলিউডের প্রথম নারী সুপারস্টার। ১৯৬৩ সালের ১৩ আগস্ট তামিলনাড়ুতে জন্ম নেওয়া শ্রীদেবীর আসল নাম শ্রী আম্মা ইয়াঙ্গার আয়াপ্পান। তিনি একাধারে তামিল, তেলেগু, মালায়লাম, কান্নাডা ও হিন্দি ছবিতে অভিনয় করেছেন।

বলিউডে শ্রীদেবীর অভিষেক হয় ‘সোলা শাওন’-এর মাধ্যমে ১৯৭৯ সালে। ২০১৩ সালে চলচ্চিত্রে অবদানের জন্য ভারতের চতুর্থ সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় সম্মান পদ্মশ্রী পেয়েছেন তিনি। চাঁদনি, লামহে, মিস্টার ইন্ডিয়া, নাগিনসহ ৯০ দশকের একের পর এক সুপারহিট চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন শ্রীদেবী। অভিনয় থেকে অবসর নিয়েছিলেন ১৯৯৬ সালে। পরে ২০১২ সালে ‘ইংলিশ ভিংলিশ’ ছবির মধ্য দিয়ে বলিউডে প্রত্যাবর্তন করেন। সর্বশেষ ২০১৭ সালে মুক্তি পাওয়া ‘মম’ ছবিতে অভিনয় করেছিলেন তিনি।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

x