আইইবি’র শোক দিবসের ব্যানারে ‘বঙ্গবন্ধু’ বানান ভুল ব্যাপক তোলপাড়

0 ১১০
স্টাফ রিপোর্টার : বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৮তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসের ব্যানারে ‘ইনস্টিটিউশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশ রাজশাহী কেন্দ্রের ব্যানারে ‘বঙ্গবন্ধু’ বানান ভুল নিয়ে রাজশাহীতে ব্যাপক তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। এমন ভুলকে ‘দুর্ভাগ্যজনক’ ও জাতির জন্য চরম অবমাননাকর বলে উল্লেখ করেছেন সচেতন মহল। অনেকেই এমন ভুলের জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণেরও দাবি জানিয়েছেন।
জাতির পিতার ৪৮ তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে গত দুই দিন আগে আইইবি রাজশাহী কেন্দ্রের ভবনের দেয়ালে এবং রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (রুয়েট) ক্যাম্পাসে  দুইটি ব্যানার সাঁটিয়ে দেয় আইইবি কর্তৃপক্ষ।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে,এই ব্যানার দুটিতেই ‘বঙ্গবন্ধু’ বানানটি লেখা হয়েছে ‘বঙ্গুবন্ধ’। গত দুই দিন থেকে ‘বঙ্গবন্ধু’ বানানে ভুল সম্বলিত ব্যানারগুলো এভাবে ঝুলে থাকায় সচেতনমহলে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে।
রুয়েটের এক প্রকৌশলী শিক্ষক বলেন,‘বঙ্গবন্ধু মানেই বাংলাদেশ। আর আইইবি একটি স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠান। এই প্রতিষ্ঠানটির রাজশাহীর নেতারা বঙ্গবন্ধুকে কতটুকু ‘ওন’ করেন তা তাদের ব্যানারে জাতির পিতার নামের বানানে ভুল থেকেই অনুমেয়। এটি বাঙ্গালি জাতির জন্য অত্যন্ত লজ্জাজনক। আইইবি,রাজশাহীর কেন্দ্রের ব্যানারে ‘বঙ্গবন্ধু’বানান ভুল এটি ছোট করে দেখার কোনো সুযোগ নেই। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের অনুরোধ জানাচ্ছি।’
‘বঙ্গবন্ধু পরিষদ’ রাজশাহী মহানগরীর সাধারণ সম্পাদক আরিফুল হক কুমার বলেন,এটা দুর্ভাগ্যজনক এমনটা হওয়া উচিৎ নয়। অবিলম্বে ব্যানার প্রত্যাহার করে নিয়ে সংশোধিত ব্যানার দেবার জন্য অনুরোধ করছি।
‘বঙ্গবন্ধু পরিষদ’র সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাবির ইতিহাস বিভাগের প্রফেসর ড. মো. আবুল কাশেম বলেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামের বানান ভুল লেখা গর্হিত অপরাধ। কারণ এটি সাংবিধানিক বিষয়। সংবিধানে এই নামটি আছে। সাংবিধানিকভাবেও কাজটি অসাংবিধানিক হয়েছে।তিনি আরো বলেন,যারা প্রকৌশলী হয় তারা সমাজের খুবই মেধাবী ছাত্র। তাদের দ্বারা এই ভুল গ্রহণযোগ্য নয়।
বঙ্গবন্ধু প্রকৌশলী পরিষদের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী মো. নূরুজ্জামান বলেন,এটি তারা খুবই অন্যায় কাজ করেছে। বঙ্গবন্ধু একজনই। উনার (বঙ্গবন্ধু) কারণে বাংলাদেশসহ আমরা এই পর্যায়ে আসতে পেরেছি। এ ব্যাপারে এখনি তাদের সঙ্গে কথা বলছি।
জানতে চাইলে আইইবি’র কেন্দ্রীয় প্রেসিডেন্ট প্রকৌশলী মো. আব্দুস সবুর বলেন,বঙ্গবন্ধুর নামের বানান ভুল করা তো ঠিক না। ভুল মানেই ভুল। যারা ভুল করেছে তাদের আমি দেখতেছি।
জানতে চাইলে আইইবি,রাজশাহী কেন্দ্রের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী মো. নিজামুল হক সরকার বলেন,আমি ব্যানারের ড্রাফটি চেক করেছি। সেটিতে ঠিক ছিল। যখন প্রিন্ট আউট হয়েছে তখন এটির ঝামেলা বেধে গেছে। তখন আর আমি দেখিনি। আমি এ ব্যাপরে সবার কাছে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। কারণ দায়িত্ব আমার আর সম্মানী সম্পাদকের উপরই পড়ে। আমি ব্যানারগুলো এখনি খুলে নিচ্ছি।

Leave A Reply

Your email address will not be published.