আলমডাঙ্গায় নবাগত ইউএনওর সাথে সাংবাদিকদের সৌজন্য সাক্ষাৎ

0 ২৫৬

আলমডাঙ্গা প্রতিনিধি : আলমডাঙ্গাতে নবাগত  উপজেলা নির্বাহী অফিসার  (ইউএনও) স্নিগ্ধা দাসের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ ও মতবিনিময় সভা করেন আলমডাঙ্গা উপজেলা প্রেসক্লাবের সাংবাদিকরা।

বৃহস্পতিবার বিকেল ৪টায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে এ মতবিনিময় সভাটি অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন আলমডাঙ্গা উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি নাহিদ হাসান, সাধারণ সম্পাদক এনএইচ শাওন, যুগ্নসাধারণ সম্পাদক সনজু আহমেদ, আব্দুল্লাহ হক, সাংগঠনিক সম্পাদক আল-আমিন হোসেন, সিনিয়র সহ-সভাপতি রাশেদুজ্জামান রাজিব, সহ-সভাপতি তানজিদ সোহেল হিরো, কার্যনির্বাহী সদস্য ইউনুছ আলী মন্ডল, সিনিয়র সাংবাদিক দৈনিক কালের কন্ঠ ও দৈনিক মাথাভাঙ্গার ব্যুরো প্রধান রহমান মুকুল, দৈনিক আমাদের নতুন সময় ও দৈনিক পশ্চিমাঞ্চল পত্রিকার অফিস প্রধান প্রশান্ত বিশ্বাস, দৈনিক ইত্তেফাক ও দৈনিক আকাশ খবরের ব্যুরো প্রধান ফিরোজ ইফতেখার, দৈনিক সমকাল ও দৈনিক মেহেরপুর প্রতিদিন পত্রিকার অফিস প্রধান তানভির সোহেল, দৈনিক সময়ের আলো ও দৈনিক মাথাভাঙ্গার সহকারী ব্যুরো শরিফুল ইসলাম রোকন, দৈনিক আমাদের সময় পত্রিকার প্রতিনিধি আনোয়ার হোসেন, দৈনিক দেশের বানী পত্রিকার ব্যুরো প্রধান এমদাদ হোসেন। এছাড়াও সাংবাদিক  ইখলাস হোসেন,  খোঃ সালাউদ্দিন মুক্তার, খাঁস খবরের প্রতিনিধি শাহরিয়ার শরিফ, , নাসির উদ্দীন, রানা মাহমুদ।

মতবিনিময় সভায়  উপজেলা নির্বাহী অফিসার  স্নিগ্ধা দাস বলেন, আলমডাঙ্গা উপজেলাতে আমি  নতুন যোগদান করেছি। যতটুকু পেরেছি এই উপজেলা  নিয়ে অনেক কিছু জানার চেষ্টা করেছি।যেহেতু চুয়াডাঙ্গা জেলার ভিতরে একটি বৃহত্তম উপজেলা  তাই এই উপজেলার সার্বিক উন্নয়নে আমাকে অনেক চ্যালেঞ্জের মোকাবিলা করতে হবে। উপজেলার সার্বিক উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় সাংবাদিকদের ইতিবাচক সহযোগিতা কামনা করেছি। সাংবাদিকরা সমাজের দর্পন,গণমাধ্যম কর্মীরা স্বাধীন। সাংবাদিকদের পিঠে কখনো রাজনৈতিক ব্যক্তিদের ছাপ পড়তে পারে না।  তাদের খূরধারা  ধারা লেখনির মাধ্যমে সামাজিক সমস্যাগুলো উঠে আসবে এবং সকল মানুষের কাছে তথ্যগুলো গ্রহণযোগ্য হবে ।মহত্ত্ব নিয়ে অনাসক্ত হয়ে ব্যক্তিসত্তার স্বকীয়তা ভূলতে হবে।  জাতির স্বার্থই হবে ব্যক্তির স্বার্থ। জাতির কল্যাণেই হবে ব্যক্তির কল্যাণ। আলমডাঙ্গার  অনেক সুনাম রয়েছে, বিশেষ করে পান, ভুট্টা,  ধান, পশুপালনে বাংলাদেশের  ভেতর এগিয়ে আছে ।আমার যতোদূর চোখ গেছে  চারিদিকে শুধু সবুজের সমারোহ। সবেমাত্র এসেই  ফসলী জমির হিমেল হাওয়া আমার কাছে খুবই ভালো লেগেছে। আমি আলমডাঙ্গা উপজেলায় ভালো কিছু করতে চাই। এ জন্য সাংবাদিকদের সহযোগিতা প্রয়োজন।

এ সময় সাংবাদিকরা তাদের বিভিন্ন মতামত প্রকাশ করে  এবং সাংবাদিকরা  সমাজের সামাজিক সমস্যাগুলো তুলে ধরে।
মতবিনিময় সভা শেষে আলমডাঙ্গা উপজেলা প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে (ইউএনও)কে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়।

Leave A Reply

Your email address will not be published.