ইউনিস্যাব রাজশাহী বিভাগের স্বেচ্ছাসেবীদের দক্ষতা উন্নয়ন কর্মসূচি ‘লেটস থিংক’ সম্পন্ন

0 ১৭৭

রাবি প্রতিনিধি: ‘ইউনাইটেড ন্যাশন্স ইয়ুথ এন্ড স্টুডেন্ট এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ’ (ইউনিস্যাব)-এর রাজশাহী ডিভিশন তাদের ৯ম ও ১০ম স্বেচ্ছাসেবীদের দক্ষতা বৃদ্ধিতে কর্মশালাভিত্তিক প্রোগ্রাম ‘লেটস থিংক’ সম্পন্ন করেছে। প্রতি বছর স্বেচ্ছাসেবীদের বুদ্ধিবৃত্তিক ও কারিগরি দক্ষতা উন্নয়নের জন্যেই এ আয়োজন করে সংগঠনটি।

শুক্রবার (২৭ মে) সকাল সাড়ে৷ ৯টায় জাতীয় সংগীত দিয়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মমতাজ উদ্দীন কলা ভবনের ২০৪ নম্বর রুমে শুরু হয় এবং বিকাল সাড়ে ৫টায় শেষ হয়। এসনময় বিচারক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইউনিস্যাবের ফরমার রিজিওনাল সেক্রেটারি সাব্বির আহমেদ।

এছাড়া ইউনিস্যাবের ফরমার কো-অর্ডিনেটর অফ লজিস্টিক্স এন্ড সাপোর্ট-এর মুগ্ধ বড়ুয়া জয় এবং ফরমার কো-অর্ডিনেটর অফ এডমিনিস্ট্রেশন-এর সুমাইয়া ইসলাম উর্মি। অনুষ্ঠানের প্রথম পর্যায়ে সাবেক সদস্য মুগ্ধ বড়ুয়া জয় ‘লেটস থিংক’ অনুষ্ঠানটিতে সার্বিক বিষয়ে দিকনির্দেশনামূলক ওয়ার্কশপ পরিচালনা করেন। ওয়ার্কশপটিতে একটি প্রোগ্রাম কীভাবে সফলতার সাথে পরিচালনা করা যায় সে বিষয়ে সার্বিক ধারনা দেন।

তিন ধাপে বিভক্ত অনুষ্ঠানটিতে ইউনিস্যাবের ৯ম এবং ১০ম ব্যাচের স্বেচ্ছাসেবীদেরকে সর্বোমোট ছয়টি গ্রুপে বিভক্ত করা হয়। প্রথম ধাপে ‘প্লান ওভারভিউ এন্ড অবজেক্টিভস’ বিষয়ের উপর ভিত্তি করে প্রতিটি টিম থেকে একটি করে প্ল্যান নেওয়া হয় এবং টিমগুলোকে উক্ত প্ল্যান উপস্থাপন করা হয়।

একইভাবে দ্বিতীয় এবং তৃতীয় ধাপে ‘এক্সেকিউশন এন্ড টাইমলাইন’ এবং ‘পোস্ট প্রোগ্রাম এক্টিভিটিস এন্ড বাজেট ফেসিবিলটিস’ বিষয়ের উপর টিমগুলো তাদের প্ল্যান উপস্থাপন করেন। প্রতিটি দল অসাধারণভাবে তাদের প্ল্যান উপস্থাপন করেন। বিচারকগণ প্রতিটি দলের প্ল্যানগুলো সূক্ষ্ম বিচার বিশ্লেষণের মাধ্যমে একটি টিমকে বিজয়ী ঘোষণা করেন।

অনুষ্ঠানের শেষের দিকে ইউনিস্যাব রাজশাহী ডিভিশন-এর রিজিওনাল সেক্রেটারি অনিক চন্দ্র শীল বলেন, আপনাদের দেওয়া এই প্ল্যানগুলোই ভবিষ্যতে ইউনিস্যাব বাস্তবায়ন করার সর্বোচ্চ চেষ্টা করবে। সবসময় নিজেদের সর্বোচ্চ দেওয়ার প্রতি আহ্বানও জানান তিনি। ইউনিস্যাবের স্বেচ্ছাসেবীদের জন্য ভবিষ্যতে এই ধরনের দক্ষতা উন্নয়নমূলক অনুষ্ঠান আরো আয়োজন করবে বলে আগ্রহ প্রকাশ করেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.