উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আওয়ামী লীগের বিকল্প নেই- লিটন

0 ৯৪

স্টাফ রিপোর্টার: বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের পুনরায় নির্বাচিত মেয়র জননেতা এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, খন্দকার মোস্তাককে সামনে রেখে জিয়াউর রহমান নেপথ্যে থেকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করেছিল। কেউ যদি বলে জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধুকে হত্যার নেপথ্যে ছিলেন না, তাহলে তিনি ইতিহাস জানেন না। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পেছনে অবশ্যই জিয়াউর রহমান ছিলেন।

১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৮তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে রবিবার বিকেলে নাটোরের বড়াইগ্রাম পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বড়াইগ্রাম উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত বিশাল শোক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, অগাস্ট মাস আসলে বাঙালি জাতি শোকে কাতর হয়। একই সাথে শপথ নেয় আর কোনদিন যাতে ১৫ আগস্ট মাসের মতো কোন ঘটনা না ঘটে।

তিনি আরো বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতার জন্য গ্রামে গ্রামে গিয়ে মানুষকে সংগঠিত ও উদ্বুদ্ধ করেন। ৭ ই মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণে বঙ্গবন্ধু মানুষের ভেতরের আগুনকে জাগিয়ে তোলেন। মানুষের মধ্যে শক্তি সাহস সৃষ্টি করলেন। বাঙালি জাতি ঝাপিয়ে পড়ে দেশের স্বাধীনতা ছিনিয়ে আনে।

খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, বাংলার মাটিতে তারেক জিয়া, খালেদা জিয়ার বিচার হয়েছে। তারা যে অন্যায় করেছে, তার শাস্তি তারা পাচ্ছে। তারেক জিয়াকে অবশ্যই দেশে এনে বিচারের আওতায় আনা হবে।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, বিএনপি সরকারের আমলে সব কিছু ছিল নাই আর নাই। তাদের আমলে সার নাই, বিদ্যুৎ না, উন্নয়ন নাই। আর  আওয়ামী লীগ মানেই উন্নয়ন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে কোথায় নিয়ে গেছে, তা আজ দৃশ্যমান। মানুষ উন্নয়নের পক্ষেই থাকবে, অন্য দিকে তাকাবে না।

রাসিক মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, আওয়ামী লীগ মানেই বাংলাদেশের ইতিহাস। আওয়ামী লীগ মানে মাথা উচু করে হতে গর্ব করে দাঁড়িয়ে থাকার ইতিহাস। আওয়ামী লীগ মানে মাথা নত না করা। আওয়ামী লীগ মানেই দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব অক্ষুণ্ন রাখা। দেশের যা কিছু অর্জন, যা কিছু কল্যান, সবই আওয়ামী লীগের মাধ্যমে অর্জন হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকার মানুষকে সামাজিক সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে এনে বয়স্ক ভাতা, প্রতিবন্ধিভাতা,বিধবা ভাতা সহ বিভিন্ন ভাতা দিচ্ছে। কয়দিন আগে সার্বজনীন পেশসন ব্যবস্থার উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী। এটি ব্যাপকভাবে গ্রহণযোগ্যতা হয়েছে। দেশের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আওয়ামী লীগের বিকল্প নেই। আগামী নির্বাচনে আবারো আওয়ামী লীগ সরকারকে ক্ষমতায় আনতে হবে।

শোক সভায় প্রধান বক্তা ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম কামাল হোসেন। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, তারেক জিয়া লন্ডনে দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে। লন্ডন বসে তারেক জিয়া যে চক্রান্ত করছে, বাংলার মানুষ মানুষ সেই কুলাঙ্গালের চক্রান্তকে সফল হতে দিবে না।

তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে যারা হত্যার চেষ্টা করেছিল তারাই এখন দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে, তাদেরকে প্রতিহত করতে হবে।

বড়াইগ্রাম উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ আব্দুল কুদ্দুসের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও নাটোর-৪ (বড়াইগ্রাম-গুরুদাসপুর) আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কুদ্দুস, রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম রমজান, নাটোরের সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য রত্ন আহমেদ। শোক সভায় সঞ্চালনা করেন বড়াইগ্রাম উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. মিজানুর রহমান।

এরআগের দুপুরের পর থেকে খন্ড খন্ড মিছিল নিয়ে শোক সভাস্থল বড়াইগ্রাম পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে জড়ো হন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মী। হাজার হাজার নেতাকর্মীসহ সর্বস্তরের জনসাধারণের অংশগ্রহণে পরিপূর্ণ হয়ে ওঠে শোকসভার আয়োজনস্থল।

Leave A Reply

Your email address will not be published.