উৎপাদন হ্রাসে বিশ্ববাজারে বেড়েছে তেলের দাম

0 ১৩৮

নিজেদের আয় ঠিক রাখতে তেল উৎপাদন কমিয়ে দিয়েছে সৌদি আরব, রাশিয়াসহ তেল উৎপাদনকারী দেশগুলো। আর এতেই সোমবার (৩ জুলাই) বিশ্ববাজারে বেড়েছে অপরিশোধিত তেলের দাম। খবর এএফপির।

ফরাসি সংবাদ সংস্থাটি তাদের প্রতিবেদনে জানায়, তেলের উৎপাদন প্রতিদিন ১০ লাখ ব্যারেল কমানোর ঘোষণা দিয়েছে সৌদি। অন্যদিকে, রাশিয়া জানিয়েছে, তারা প্রতিদিন পাঁচ লাখ ব্যারেল তেল রপ্তানি কম করবে। আর এতেই আন্তর্জাতিক বেঞ্চমার্ক প্রতিষ্ঠান ব্রেন্ট ক্রুড ও যুক্তরাষ্ট্রের ওয়েস্ট টেক্সাস ইমিডিয়েটে (ডাব্লিউটিআই) অপরিশোধিত তেলের দাম বেড়েছে।

তেল উৎপাদনকারী জোট ওপেক প্লাসের অন্যতম দুই সদস্যের ঘোষণায় তেলের দাম বাড়তে পারে এই অনুমান আগে থেকেই করা হচ্ছিল। আর হলোও তেমনটাই।

প্রতিবেদনে এএফপি আরও জানিয়েছে, আজ সোমবার গ্রিনিচ টাইম ১১টা ৩০ মিনিটে ব্রেন্ট ক্রুডের দাম এক শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭৬ দশমিক ১২ ডলার। ডব্লিউটিআই ক্রুডের দামও বেড়েছে এক দশমিক এক শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭১ দশমিক ৪২ ডলারে।

এদিকে, তেলের দাম বাড়ায় বিশ্বজুড়ে শেয়ার সূচকও বেড়েছে। লন্ডনের এফটিএসই ১০০ সূচক বেড়েছে শূন্য দশমিক তিন শতাংশ। প্যারিসের সিএসি ৪০ সূচক শূন্য দশমিক দুই শতাংশ বেড়ে গিয়ে ঠেকেছে সাত হাজার ৪১২ দশমিক ৪৫ এ। জার্মানির ফ্র্যাঙ্কফুর্ট-ডিএএক্স শেয়ার বাজারে পতন হয়েছে শূন্য দশমিক এক শতাংশ। ইউরো স্টক্স ৫০ বাজারে শেয়ারের সূচক বেড়েছে শূন্য দশমিক তিন শতাংশ। টোকিওর নিক্কেই শেয়ার বাজারে সূচক এক দশমিক সাত শতাংশ বেড়েছে।

প্রতিবেদনে এএফপি আরও জানিয়েছে, মূল্যস্ফীতিতে লড়তে থাকা এশিয়া ও ইউরোপের শেয়ার বাজারগুলো আরও অগ্রসর হয়েছে। অঞ্চল দুটির মধ্যে থাকা দেশগুলোর কেন্দ্রীয় ব্যাংক সুদের হার বাড়াতে পারে এমন আশা করা হচ্ছে।

তেলের দাম বৃদ্ধি নিয়ে আইজির গবেষক ক্রিস বেহাহুচ্যাম্প বলেন, ‘তেল উৎপাদন কমানোর ঘোষণার পর এমনটা হওয়া স্বাভাবিক। তবে, গোটা ওপেক প্লাস জোটের সিদ্ধান্ত নয় এটি।’

Leave A Reply

Your email address will not be published.