এশা ও তারাবির নামাজে ইমাম-মুয়াজ্জিনসহ সর্বোচ্চ ১২ জন: আইইডিসিআর

190

বিডি সংবাদ টোয়েন্টিফোর ডটকম: আসন্ন পবিত্র রমজান মাসে এশার ও তারাবির নামাজে ইমাম, মুয়াজ্জিন, খতিব, খাদিম ও দুই জন হাফেজসহ সর্বোচ্চ ১২ জন একত্রে অংশগ্রহণ করতে পারবেন বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

তিনি বলেছেন, ‘আসন্ন পবিত্র রমজান উপলক্ষে ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয় পবিত্র মাহে রমজানে এশার নামাজ ও তারাবির নামাজ কতজন কিভাবে আদায় করবেন তার নির্দেশনা দিয়েছেন। কোভিড-১৯ প্রতিরোধে আমাদের সকল মুসল্লি ভাইদের অনুরোধ জানাই, আপনারা এই নির্দেশনা মেনে চলুন।’ব্রেকিংনিউজ

ডা. সুলতানা বলেন, ‘ইমাম, মুয়াজ্জিন, খতিব, খাদিম ও দুই জন হাফেজসহ সর্বোচ্চ ১২ জন এশার এবং তারাবির নামাজে অংশগ্রহণ করতে পারবেন। আশা করি আপনারা এই নির্দেশনা মেনে চলে নিজে সুস্থ থাকবেন এবং আপনার পরিবারকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করবেন।’

বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) করোনা পরিস্থিতি নিয়ে সরকারের জাতীয় রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইডিসিআর) এর ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে নিয়মিত বুলেটিনে সংযুক্ত হয়ে তিনি এসব তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘ইফতার বিষয়েও নির্দেশনা আছে ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের। আমরা ইফতার মাহফিল নিয়ে কোনও রকম সামাজিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করবো না। আমরা সবাই নিজের ঘরে থেকে ইফতার করবো। এশার এবং তারাবির নামাজ আদায় করবো। নিজে সুস্থ থাকবো এবং প্রত্যেকে প্রত্যেককে সুস্থ রাখতে সাহায্য করবো।’

তিনি আরও বলেন, ‘এই পরিস্থিতিতে সকালকে স্বাস্থ্য পরামর্শ ও স্বাস্থ্যবিধিগুলো কঠোরভাবে মেনে চলতে হবে। তা না হলে আমাদের ভয়াবহ পরিণতি ভোগ করতে হবে। সকলের সহযোগিতায়ই এ সংকট মোকাবিলা করা সম্ভব হবে। আমাদের আক্রান্তের সংখ্যা কিন্তু বাড়ছে। গতকাল ছিল ৪১৪ জন, আজ হলো ৫০৩ জন। সবার সহযোগিতা পেলেই এই সংখ্যাটা কমের দিকে যেতে পারে, নইলে কিন্তু বাড়তেই থাকবে।’

প্রতিদিনের খাদ্যাভ্যাসে বেশি করে তরল খাবার গ্রহণের পরামর্শ দিয়ে ডা. সুলতানা বলেন, ‘সামনে আমাদের রমজান আসছে। রমজানে হয়তো দিনের বেলা আমরা খাবো না, কিন্তু ইফতারের পরে আমরা যেন তরল খাবার বেশি করে খাই। আদা-লবণ মিশ্রিত গরম পানি দিয়ে গারগেল করতে পারি, গরম পানি পান করতে পারি। কালোজিরা, মধু কিংবা ভিটামিন ‘সি’ সমৃদ্ধ ফলমূল আমরা গ্রহণ করতে পারি। যা করোনা প্রতিরোধে সহায়ক হবে এবং যা স্বাস্থ্যের জন্যও ভালো।

এসময় তিনি রমজানের স্বাস্থ্যবিধি ও করোনা প্রতিরোধের স্বাস্থ্যবিধিগুলো সবাইকে মেনে চলার অনুরোধ জানান।

x