কবিগুরুর ১৬৩তম জন্মজয়ন্তী উদযাপনে প্রস্তুত শাহজাদপুর কাছারিবাড়ি

0 ৫৫

শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) থেকে: কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৬৩তম জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরের রবীন্দ্র কাছারিবাড়িতে এখন সাজ সাজ রব। তিন দিনব্যাপী উৎসবকে কেন্দ্র করে শেষ মুহূর্তের অনুশীলনে ব্যস্ত সময় পার করছে শিল্পীরা। আয়োজকরা বলছে, রবীন্দ্র জন্মজয়ন্তী আনন্দঘন ও উৎসব মুখর করার পাশাপাশি অনুষ্ঠানে আগত দর্শনার্থীদের কথা মাথায় রেখে সব ধরনের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

এবারও কবিগুরুর ১৬৩ তম জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে থাকছে তিন দিনব্যাপী নানা অনুষ্ঠানমালা। রবীন্দ্র জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে পুরো কাছারিবাড়িতে এখন সাজ সাজ রব। শেষ মুহূর্তে অনুশীলনে ব্যস্ত সময় পার করছে বিভিন্ন সংগঠনের শিল্পীরা। নৃত্য, গান, কবিতার অনুশীলন চলছে। অন্য দিকে আলপনা আঁকা, ডেকোরেশন, লাইটিংসহ সাজসজ্জার কাজও চলছে সমান তালে।
জেলা প্রশাসন আয়োজিত ৮ মে থেকে ১০ মে ৩ দিন ব্যাপী রবীন্দ্র জন্মজয়ন্তী উৎসবে সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসক মীর মাহবুবুর রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করবেন মাননীয় ভূমি মন্ত্রী নারায়ন চন্দ্র চন্দ।
সমাপনী অনষ্ঠানে পরিধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন স্থানীয় সংসদ সদস্য জনাব চ্য়ন ইসলাম এমপি। অনুষ্ঠান মেলায় থাকছে রবীন্দ্র সংগীত, নৃত্য, কবিতা, ছড়া, প্রবন্ধ ও রবীন্দ্র আলোচনা। সব মিলিয়ে জন্মজয়ন্তী উৎসবের ৩ দিন দেশ বিদেশের রবীন্দ্র ভক্তদের পদচারণায় মুখরিত থাকছে শাহজাদপুরের কাছারিবাড়ি প্রাঙ্গণ।
শাহজাদপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ কামরুজ্জামান জানান, রবীন্দ্র কাছারি বাড়ি জন্ম জয়ন্তী অনুষ্ঠানের সকল কার্যক্রম প্রায় শেষ। অনুষ্ঠানে আগত অতিথি ও সকল দর্শনার্থীদের প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা ব্যাবস্থা থাকবে।
নাটোরের রানী ভবানীর জমিদারির একটি অংশ শাহজাদপুরের জমিদারি নিলামে উঠলে কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের পিতামহ প্রিন্স দ্বারকানাথ ঠাকুর ১৮৪০ সালে মাত্র ১৩ টাকা ১০ আনায় শাহজাদপুরের এ জমিদারি কিনে নেন। ১৮৯০ থেকে ১৮৯৭ পর্যন্ত রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর শাহজাদপুরের জমিদারি দেখাশুনার জন্য এখানে আসতেন এবং সাময়িকভাবে বসবাসও করতেন।
শাহজাদপুরের কাছারিবাড়ির রবীন্দ্র জাদুঘরে এখনও সংরক্ষণ করে রাখা হয়েছে কবির ব্যবহৃত চেয়ার, টেবিল, খাট, বিভিন্ন তৈজসপত্রসহ বহু জিনিস। যা দেখে মুগ্ধ এখানে ঘুরতে আসা দর্শনার্থীরা।
প্রতি বছর ২৫ শে বৈশাখ বিশ্বকবির জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে পুরো কাছারিবাড়ি প্রাঙ্গণ ঘিরে থাকে উৎসবের আমেজ।
শাহজাদপুরের কাছারি বাড়ির কাস্টডিয়ান আবু সাঈদ ইনাম জানান, কবির জন্মজয়ন্তী আনন্দঘন ও উৎসব মুখর করার পাশাপাশি অনুষ্ঠানে আগত দর্শনার্থীদের কথা মাথায় রেখে সব ধরনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।
কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর শাহজাদপুরের এ কাছারিবাড়িতে বসেই রচনা করেছেন সোনারতরী, চৈতালী, কল্পনা, ছোটগল্প পোস্টমাস্টার, ছুটি, সমাপ্তি, ক্ষুধিত পাষাণসহ অসংখ্য সাহিত্য কর্ম।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.