কবি ওয়ালী কিরণ এর মৃত্যুতে বগুড়া লেখক চক্রের শোকসভা

0 1,007

BlC pic

বগুড়া প্রতিনিধি: বগুড়া লেখক চক্রের কার্যালয় গত শুক্রবার সন্ধ্যায় অশ্রুসিক্ত হয়েছিল । কতটুকু ভালবাসা থাকলে একজন কবি ওয়ালী কিরণের জন্য অশ্রু ফেলতে পারেন তার সতীর্থরা। যিনি কথা বলেছেন তিনিই নিজেকে ভিজিয়েছেন, ভিজিয়েছেন পুরো শোকসভাকে। কতটুকু আপন ছিলেন ওয়ালী কিরণ, শোকসভায় অশ্রু বিসর্জন তার প্রমাণ বহন করে। আশির দশকের অন্যতম কবি, ছোটকাগজ ‘ক্রম’ সম্পাদক ওয়ালী কিরণের অকাল মৃত্যুতে বগুড়া লেখক চক্র আয়োজন করেছিল এক শোকসভার।

সংগঠনের সভাপতি কবি ও লিটল ম্যাগাজিন সম্পাদক এবং ওয়ালী কিরণের বন্ধু ইসলাম রফিক অনুষ্ঠিত শোকসভায় সভাপতিত্বে  সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ষাট দশকের অন্যতম কবি অধ্যাপক মুহম্মদ শহীদুল্লাহ। ওয়ালী কিরণের জীবন ও কর্ম নিয়ে কথা বলেন বগুড়া লেখক চক্রের উপদেষ্টা এ্যাড. পলাশ খন্দকার, কবি শিক্ষাবিদ খৈয়াম কাদের, কবি ও ছোট কাগজ ‘দ্যুতি’ সম্পাদক এবং ওয়ালী কিরণের বন্ধু জয়ন্ত দেব, কবি পান্না করিম, কবি মনসুর রহমান, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ছড়াকার আমির খসরু সেলিম, গণ সংযোগ সম্পাদক বেলাল সরকার, অর্থ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম রনজু, কবি সিক্তা কাজল, কবি কামরুন নাহার কুহেলী ও কবি আফসানা জাকিয়া।  নিবেদিত কবিতা এবং ওয়ালী কিরণের কাব্যগ্রন্থ থেকে কবিতা পড়েন কবি কামরুজ্জামান মাসুম, শাহান ই জেসমিন ডরোথী, এস এম আনিছুর রহমান, হাদিউল হৃদয়, রাহমান মিজান, আল আমিন মোহাম্মদ, হিরুণ্য হারুন, নয়ন আহম্মেদ, রাব্বী হাসান, অরণ্য আপন, অভীক অন্তর, সামিউল  ইসলাম, আব্দুল মতিন, মোঃ মাহতাব এবং মোঃ শফি। শোকসভার শুরুতেই কবির জীবনী পাঠ করে শোনান কবি কামরুন নাহার কুহেলী।

বক্তারা বলেন-ওয়ালী কিরণ ছিলেন একজন স্বভাব কবি। কবিতা ছিল তার ধ্যান, জ্ঞান। কবিতাকে তিনি করেছিলেন জীবনের অন্যতম সঙ্গী। ফলে তার সকল চিন্তা কিংবা কাজকর্ম সবকিছু নিবিষ্ট থাকতো কবিতাকে ঘিরে। সদালাপী এই কবি সবার সাথে মিশতেন। ফলে তার কবিতা তাকে যেমন জনপ্রিয় করেছে, তেমনি তার ব্যবহারও তাকে করেছিলো জনপ্রিয়। তার কবিতায় উঠে এসেছে গ্রামীণ বাংলার কথা, লোকজ সংস্কৃতির কথা, সমাজের নি¤œস্তরের মানুষের বেদনার কথা। তার কবিতায় ব্যবহৃত পুরাকীর্তির মাধ্যমে তিনি পৌঁছে যেতেন পূর্বসূরীদের কাছে। তার প্রথম প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থ ‘উৎস ভূমি’তে উঠে এসেছে বৃহত্তর রাজশাহী জেলার পথে প্রান্তরের কথা। কবির তার জন্ম ২১ জানুয়াতি ১৯৫৮ এবং মৃত্যু ১৬ আগস্ট ২০১৬। কবিতায় অবদানের জন্য তিনি ২০১৪ সালে পেয়েছেন বগুড়া লেখক চক্র সম্মাননা এবং কবিকুঞ্জ সম্মাননা।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

x