‘গাল্লিবয়’ রানা ও তাবিবের জন্য প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপহার

110

বিনোদন ডেস্ক: রানা, পুরো নাম রানা মৃধা। কামরাঙ্গীরচরের এই শিশু বাকি আট দশটা শিশুর মতোই একজন পথশিশু ছিলো। যে কিনা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় ঘুরে বেড়াতো আর দুইটাকা, পাঁচ টাকার বিনিময়ে মানুষদের গান শোনাতো। বিশেষ করে র‍্যাপ গান। একদিন এই অবিশ্বাস্য রানা পড়ে গেলেন জহুরীর হাতে। মাহমুদ হাসান তবীব নামের ঢাবির এই শিক্ষার্থী জেনো রানার জীবনে পরশ পাথর হয়ে আসলেন। তাবীরের লেখনি আর রানার র‍্যাপের কারণে তারা দুজনই আজ বিখ্যাত।

রূপকথার রাজকুমারের মত পথশিশু রানা হয়ে গেলেন ঢাকাইয়া ‘গাল্লিবয়’ । তাদের প্রকাশিত প্রথম র‍্যাপ গান ‘গাল্লিবয়’ এতই আলোড়ন সৃষ্টি করে যে বিদেশ মিডিয়াতেও রানাকে নিয়ে সংবাদ প্রচার হয়। ধারাবাহিক ভাবে তারা প্রকাশ করে ‘গাল্লিবয়’, ‘গাল্লিবয়’ পার্ট টু, ‘গাল্লিবয়’ পার্ট ৩ ও সবশেষে প্রকাশ পেয়েছে হিপহপ পুলিশ। প্রত্যেকটি গানের ক্ষুরধার প্রতিবাদী ও জীবনমুখী লেখনী ধারাবাহিক ভাবে শ্রোতাদের মুগ্ধ করে আসছে।

এবার তারা দৃষ্টি কাড়লেন দেশের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার। তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক জানান, রানা মৃধা ও তবীবকে অত্যাধুনিক ভিডিও ক্যামেরা উপহার দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী। এ ছাড়া রানা মৃধার পড়াশোনার খরচও সরকার বহন করবে বলে তিনি নিশ্চিত করেছেন।

জুনাইদ আহমেদ পলক গত ১৬ অক্টোবর রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলনকেন্দ্রে ‘ডিজিটাল ডিভাইস ও ইনোভেশন এক্সপো’তে এ তথ্য জানান। দেশের সর্ববৃহৎ প্রযুক্তি প্রদর্শনী ‘ডিজিটাল ডিভাইস ও ইনোভেশন এক্সপো’র সেই সমাপনী অনুষ্ঠানের কনসার্টেও অংশ নিয়েছিলেন রানা মৃধা ও তবীব মাহমুদ।

এই প্রসঙ্গে তবীব মাহমুদ বলেন, প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে ক্যামেরা আর রানার পড়াশোনার দায়িত্ব নেয়া হবে বলে আমাকে জানানো হয়েছে। এ জন্য প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাই।

x