চলচ্চিত্র অভিনেতা তাপস পাল আর নেই

0 ৫০৬

বিনোদন ডেস্ক : বাংলা সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেতা তাপস পাল আজ মঙ্গলবার ভোরে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মুম্বাইয়ের এক বেসরকারি হাসপাতালে মারা যান তিনি। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬১ বছর।

কলকাতার আনন্দবাজার পত্রিকা, এবিপি নিউজসহ অন্যান্য গণমাধ্যম এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছে।

দীর্ঘদিন ধরে স্নায়ুরোগে ভুগছিলেন তাপস পাল। ১ ফেব্রুয়ারি বান্দ্রার হাসপাতালে ভর্তির পর থেকে তাকে ভেন্টিলেশনে রাখা হয়। ৬ ফেব্রুয়ারি তার ভেন্টিলেশন খুলে নেওয়া হয়। গতকাল রাতে তিনি আবারও অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। পরে দিবাগত রাত তিনটা ৩৫ মিনিটে তার মৃত্যু হয়।

পরিচালক তরুণ মজুমদারের ‘দাদার কীর্তি’ ছবি দিয়ে অভিনয় জীবনে পদার্পণ। ভূয়সী প্রশংসা পায় তার অভিনয়। তারপর আর ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে। ‘গুরুদক্ষিণা’, ‘বলিদান’, ‘কড়ি দিয়ে কিনলাম’র মতো একের পর এক সুপারহিট ছবি ছিল তার ঝুলিতে। একটা সময় বাংলা ছবির ইন্ডাস্ট্রিতে প্রসেনজিতের সঙ্গে তার কড়া টক্কর ছিল।

২০০১ সালে তৃণমূল কংগ্রেসের হাত ধরে সক্রিয় রাজনীতিতে পা রাখেন তিনি। ওই বছর এবং ২০০৬ সালে পরপর দুবার বিধানসভা নির্বাচনে জেতেন। তুমুল জনপ্রিয়তার জন্য তিনি তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আস্থাভাজন হন। ২০০৯ এবং ২০১৪ সালে পরপর দুবার কৃষ্ণনগর লোকসভা কেন্দ্র থেকে সাংসদ নির্বাচিত হন তিনি। চলচ্চিত্রের মত তার রাজনৈতিক ক্যারিয়ারও ছিল ঈর্ষণীয়।

তবে রাজনীতি যুক্ত হয়ে তিনি দুর্নীতি ও বেফাঁস মন্তব্য করে নানা বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন। ২০১৬ সালের ডিসেম্বরে রোজভ্যালি দুর্নীতির অভিযোগে তাকে গ্রেপ্তার করে সিবিআই। চিটফান্ড দুর্নীতিতেও তার নাম ছিল।

১৯৫৮ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর হুগলির চন্দননগরে জন্ম নেন তাপস পাল। সিনেমা জগতে পা রাখার সময় তাপস পালের বয়স ছিল মাত্র ২২ বছর। শুধু কলকাতা নয় তার সহজিয়া অভিনয় তাকে বলিউডেও টেনে নিয়ে গিয়েছিল।

১৯৮৪তে হীরেন নাগের ছবিতে তার বিপরীতে নায়িকা ছিলেন মাধুরী দীক্ষিত। রাখী গুলজারের সঙ্গেও অভিনয় করতে দেখা গিয়েছে তাকে।

মায়া মমতা’, ‘সুরের ভুবনে’ ‘সমাপ্তি’ ‘চোখের আলো’ ,’অন্তরঙ্গ’ সাহেব’ প্রভৃতি বিখ্যাত বাংলা সিনেমায় তিনি অভিনয় করেছিলেন। ১৯৮১ সালে সাহেব ছবির জন্য তিনি পান ফিল্ম ফেয়ার অ্যাওয়ার্ড।

Leave A Reply

Your email address will not be published.