চলতি মাসে কিয়েভে ১৬তম বিমান হামলা রাশিয়ার

0 ১৪৯
ইউক্রেনের কিয়েভে একটি বেসরকারি ভবনে রুশ বিমান হামলায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। আগুনটি নেভাতে জোর প্রচেষ্টা চালাচ্ছে দমকল কর্মীরা। ছবি : রয়টার্স

ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভে একের পর এক হামলা চালাচ্ছে রাশিয়া। গতকাল রোববার (২৮ মে) গভীর রাতে ক্ষেপণাস্ত্র ও ড্রোন হামলা চালায় মস্কো বাহিনী। সেই রেশ কাটতে না কাটতেই আজ সোমবার (২৯ মে) সকালেও কিয়েভজুড়ে আকাশপথে হামলা চালানো হয়েছে। এ নিয়ে চলতি মাসে ১৬তম বারের মতো ইউক্রেনের রাজধানীতে হামলা চালাল মস্কো বাহিনী। খবর রয়টার্সের।

রাশিয়ার আকাশপথে হামলা চালানোর আগেই কিয়েভের আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার সাইরেন বেজে ওঠে। এ সময় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে। তবে, যারা সাইরেনকে উপেক্ষা করেছিল পরে গিয়ে তারা বিপাকে পড়ে। আকাশে ধোঁয়া দেখে দ্রুত নিরাপদে যেতে হুড়মুড়িয়ে পরেন।

সর্বশেষ হামলা নিয়ে কিয়েভ কর্তৃপক্ষ বলছে, রাশিয়ার সবগুলো ক্ষেপণাস্ত্র ভূপাতিত করা হয়েছে। এতে পডিল ডিস্ট্রিক্টে একজন আহত হয়েছে। তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া তেমন কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

কিয়েভের মেয়র ভিটালি ক্লিটসকো বলেন, ‘রাজধানীর কেন্দ্রীয় ডিস্ট্রিক্টগুলোতে বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে। সেখানে জরুরি পরিষেবার দল পাঠানো হয়েছে।’

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টেলিগ্রামে এক পোস্টে ভিটালি ক্লিটসকো লেখেন, ‘কিয়েভে হামলা চলমান রয়েছে। নিরাপদস্থল ছাড়বেন না।’

ইউক্রেনের সশস্ত্র বাহিনীর কমান্ডার ইন চিফ ভ্যালেরি জালুঝনি বলেন, ‘কিয়েভে সোমবারের দ্বিতীয় হামলার সময় ১১টি ক্রুজ ও আন্তমহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্র ভূপাতিত করা হয়।’

প্রতিবেদনে রয়টার্স জানিয়েছে, সোমবার সকালে হামলার ছয় ঘণ্টা আগে ইউক্রেনের রাজধানীকে লক্ষ্য করে বিমান হামলা চালানো হয়। এ সময় হামলায় ইউক্রেনের বন্দরনগরী ওডেসাতে পাঁচটি ইউক্রেনীয় বিমানে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

ইউক্রেনের বিমান বাহিনীর মুখপাত্র ইউরি ইহানাত বলেন, ‘পশ্চিমাদের সহায়তা থেকে আসা অস্ত্রের গুদাম, বিদ্যুৎকেন্দ্র ও সরকারি ভবনকে লক্ষ্য করে হামলা চালাচ্ছে রাশিয়া। তবে, কিয়েভে তাদের ক্ষেপণাস্ত্র ভূপাতিত করায় তারা লক্ষ্য থেকে দূরে সরে যাচ্ছে।’

সম্প্রতি পাল্টা আক্রমণের কথা জানিয়েছে ইউক্রেন। এরপরে থেকেই রাশিয়া হামলা বেগবান করেছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.