চাঁপাইনবাবগঞ্জে শিক্ষার্থী নার্সদের মানববন্ধন

0 ৮১
চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি: ডিপ্লোমা ইন নার্সিং সায়েন্স এন্ড মিডওয়াইফারি  এবং ডিপ্লোমা ইন পেসেন্ট কেয়ার টেকনোলজিষ্ট কোর্স সমতাকরণের প্রতিবাদসহ ৫ দফা দাবিতে চাঁপাইনবাবগঞ্জে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচী পালন করেছে বিভিন্ন নার্সিং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নরত শতশত শিক্ষার্থী নার্স।
বুধবার (৩১মে) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ স্টুডেন্ট নার্সেস এসোসিয়েশন ও বাংলাদেশ নার্সেস এসোসিয়েশনের আয়োজনে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা হাসপাতাল চত্বরে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে চাঁপাইনববাবগঞ্জ শহরের বিভিন্ন নার্সিং শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে শিক্ষার্থী নার্সরা র‌্যালী করে জেলা হাসপাতালে জড়ো হয়। তীব্র তাপদাহ  উপেক্ষা করে মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য দেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ স্টুডেন্ট নার্সেস এসোসিয়েশন সভাপতি মোস্তাক আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক সোহেল রানা, দপ্তর সম্পাদক মোহাম্মদ আলী রাহাত, শিক্ষার্থী মাসিদুর রহমান প্রমুখ।
বক্তসরা বলেন, ইতিমধ্যে ৫ দফা দাবি পূরণে যথাযথ কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য চাঁপাইনবাবগঞ্জের জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, সিভিল সার্জন ও জেলা হাসপাতাল তত্তাবধায়ককে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। শিক্ষার্থী নার্সরা অবিলম্বে ওইসব দাবি পূরণের আহ্বান জানান।
৫ দফা দাবি পড়ে শোনান শিক্ষার্থী শামীমা খাতুন। দাবি সমুহের মধ্যে রয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জারিকৃত ডিপ্লোমা ইন পেসেন্ট কেয়ার টেকনোলজিষ্ট কোর্সকে ডিপ্লোমা ইন নার্সিং সায়েন্স এন্ড মিডওয়াইফারি  কোর্সের সমমান ঘোষণা সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপণ অবিলম্বে বাতিলকরণ।
সেই সাথে এইচএসসি উত্তীর্ণের পর ৩ বছর মেয়াদী ডিপ্লোমা ইন নার্সিং সায়েন্স এন্ড মিডওয়াইফারি  কোর্সকে স্মাতক সমমানের মর্যাদা প্রদান, গ্রাজুয়েট নার্সদের জন্য নার্সিং পেশায় ষ্পেশাল ক্যাডার সার্ভিস (সেবা ক্যাডার) দ্রুত চালু করা। প্রথম শ্রেণির শূণ্য পদ পূরণ, সরকারি চাকুরীরত নার্সদের মূল বেতনের ৩০ শতাংশ ঝুঁকিভাতা অবিলম্বে নিশ্চিত করা ও অন্যান্য টেকনিক্যাল পেশাজীবিদের ন্যায় পূর্বে প্রদানকৃত চাকুরির শুরুতে অতিরিক্ত ইনক্রিমেন্ট প্রদানের সুবিধা বহাল করা, ডিপ্লোমা ইন নার্সিং সায়েন্স এন্ড মিডওয়াইফারি শিক্ষার্থীদের ইন্টার্ণশীপ ভাতা প্রদানসহ বিএসসি ইন নার্সিং শিক্ষার্থীদের ইন্টার্ণশীপ ভাতা ২০ হাজার টাকায় উন্নীত করা এবং নীতিমালা অনুসরন না করে যে সকল নার্সিং শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে অবিলম্বে সে সকল প্রতিষ্ঠানের অনুমোদন বাতিল ও দূর্ণীতিবাজদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করা।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.