চাটমোহরে ২ গৃহবধূর আত্নহত্যা একজনের স্বামী আটক

0 ৪৭৭

চাটমোহর (পাবনা) থেকে আফতাব হোসেন: পাবনার চাটমোহরে পৃথক ২ গৃহবধূ আত্নহত্যা করেছেন। সন্দেহজনকভাবে এক গৃহবধূর স্বামীকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। চাটমোহর উপজেলার হরিপুর ইউনিয়নের কাতুলী গ্রামের আনিসুর রহমানের স্ত্রী ২ সন্তানের জননী আল্পনা খাতুন (৩৪)। পুলিশ বৃহস্পতিবার ওই গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে।

 

 

সে আত্মহত্যা করেছে নাকি তাকে হত্যা করা হয়েছে,তা নিয়ে জল্পনা কল্পনা চলছে। পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, বুধবার দিবাগত রাত ১টার দিকে আল্পনার স্বামী অনিসুর রহমান ঘুম থেকে জেগে দেখেন তার স্ত্রী ঘরের ডাবের সাথে ঝুলছে। তার চিৎকারে বাড়ির লোকজন উঠে আসে। তারা দেখেন আল্পনা মারা গেছে। খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাবনা মর্গে পাঠিয়েছে। আনিসুর রহমান দাবি করেছে,তার স্ত্রী গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

 

 

ওই সময় সে ঘুমিয়ে ছিল। নিহত আল্পনার মা আছমা বেগম দাবি করেছেন,তার মেয়েকে মারধর করে হত্যা করে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছিল। চাটমোহর থানার ওসি মোঃ আমিনুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে। সন্দেহজনকভাবে তার স্বামীকে আটক করে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্তের প্রতিবেদন পেলেই মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হওয়া যাবে। আপাতত থানায় একটি ইউডি মামলা হয়েছে।

 

অপর দিকে বৃহস্পতিবার দুপুরে গলায় ফাঁস নিয়ে আত্নহত্যা করেছে সাবিনা ইয়াসমিন টুলু (২৫) নামের এক গৃহবধূ। নিহত গৃহবধূ উপজেলার ফৈলজানা ইউনিয়নের কচুগাড়ি গ্রামের মজনুর রহমানের স্ত্রী। জানা গেছে,পারিবারিক কলহের জের ধরে ওই গৃহবধূ সবার অগোচরে নিজ শোবার ঘরের ডাবের সাথে গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করে। খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করেছে। থানার এসআই আবুল কালাম জানান, লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে এবং থানায় ইউডি মামলা হয়েছে।

 

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.