ট্রাম্পকে সমর্থন করবেন না মাইক পেন্স

0 ৯২
যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স ও সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ছবি : এএফপি

যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স বলেছেন, তিনি সুস্থ বিবেকে ২০২৪ সালের নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে সমর্থন করতে পারেন না। ফক্স নিউজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘এটা অবাক করে দেওয়ার মতো কোনো ঘটনা নয়, এ বছর আমি ডোনাল্ড ট্রাম্পকে সমর্থন করতে যাচ্ছি না।’

ডোনাল্ড ট্রাম্পেরই ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করা মাইক পেন্স অভিযোগ করে বলেন, আমরা আমাদের চার বছর শাসনকাজের মেয়াদে যে রক্ষণশীল এজেন্ডা পরিচালনা করেছি তার সঙ্গে বিরোধপূর্ণ একটি এজেন্ডা অনুসরণ করছেন ও তা প্রকাশ করছেন ট্রাম্প।

তবে ট্রাম্পকে সমর্থনের বিষয়ে সাবেক মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্টের এই অস্বীকৃতি নির্বাচনি প্রাইমারিতে প্রচারণায় তার যে অবস্থান ছিল তার সম্পূর্ণ বিপরীত চিত্রই তুলে ধরছে। প্রথম রিপাবলিকান বিতর্কের সময় পেন্স তার হাত তুলেছিলেন এই বলে যে, ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হলেও তিনি পার্টির প্রতিনিধি হিসেবে তাকেই সমর্থন করে যাবেন। আর এখন ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে চারটি অভিযোগের তদন্ত চলছে। তিনি হচ্ছেন প্রথম মার্কিন প্রেসিডেন্ট যার বিরুদ্ধে রাজ্য ও কেন্দ্রীয়ভাবে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

গতকাল শুক্রবার (১৫ মার্চ) মাইক পেন্স বলেন, তার ও ডোনাল্ড ট্রাম্পের মধ্যে বিভিন্ন ইস্যুতে বিস্তর ফারাক রয়েছে। আর এর মধ্যে ২০২০ সালের প্রচারণার পর ইলেক্টোরাল কলেজের ফলাফল প্রত্যাখ্যান করার ক্ষেত্রে ট্রাম্পের বারংবার দাবির বিরুদ্ধেই ছিল তার অবস্থান।

মাইক পেন্স বলেন, ‘আমি তার প্রার্থিতা উন্মোচিত হতে দেখেছি, আমি তাকে রাষ্ট্রীয় ঋণের বিষয়ে তার অবস্থান থেকে সরে যেতে দেখেছি। আমি তাকে মানবতার পবিত্রতার সংকল্প থেকে সরে আসতে দেখেছি।’

মাইক পেন্স চীনা কোম্পানি বাইটড্যান্সকে যুক্তরাষ্ট্রে কাজ চালিয়ে যেতে টিকটক বিক্রি করে দিতে বাধ্য করার বিষয়ে আইনসভায় ট্রাম্পের বিরোধিতারও সমালোচনা করেন।

তবে সাবেক এই মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট আগামী নভেম্বরের নির্বাচনে কাকে ভোট দিতে যাচ্ছেন সে বিষয়টি খোলাসা করে না বললেও এটা জানিয়ে দেন যে, তিনি জো বাইডেনকেও ভোট দেবেন না। মাইক পেন্স বলেন, ‘আমি নিজের ভোটটি নিজের কাছেই রেখে দিচ্ছি, তবে আমি কখনোই জো বাইডেনকে ভোট দেব না।’

Leave A Reply

Your email address will not be published.