তানোর উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে লড়তে ব্যস্ত সময় পার করছেন – মামুন 

0 ৪৫
তানোর প্রতিনিধিঃ ৬ষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ১ম ধাপের নির্বাচনী  হাওয়া বয়ছে রাজশাহীর তানোর উপজেলায়। আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান, ভাইস-চেয়ারম্যান ও ভাইস-চেয়ারম্যান(মহিলা) পদে ততাধিক প্রার্থীদের এলাকায় গণসংযোগ করতে দেখা গেছে । আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নেতৃত্ব পরিবর্তন চাই উপজেলা বাসী মর্মে চেয়ারম্যান হিসেবে আবদুল্লাহ আল মামুন কে দেখতে চায় তানোর উপজেলাবাসী।
তিনি তানোর উপজেলা চেয়ারম্যান পদে প্রতিদন্দীতার ইচ্ছে প্রকাশ করে নির্বাচনের পূর্ণ প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানা যায়।  স্থানীয় রাজনীতির শীর্ষ মহল সবুজসঙ্কেত দিয়ে আবদুল্লাহ আল মামুন কে মাঠে নামার নির্দেশনা দিয়েছেন বলেও গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে।
আবদুল্লাহ আল মামুন প্রার্থী হবার খবরে একটি বিশেষ মহলের চোখেমূখে হতাশার ছাপ ফুটে উঠেছে বলে মন্তব্য করছেন তাঁর সমর্থকরা ।
 খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আবদুল্লাহ আল মামুন ছাত্র জীবন ও পরিবার থেকেই বঙ্গবন্ধুর আর্দশে অনুপ্রাণিত হয়ে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েন। রাজনীতির জীবনে কামার গাঁ ইউপির দুই বারের সফল চেয়ারম্যান নির্বাচিত  হয়েছেন  ও দীর্ঘ সময় তানোর উপজেলার আওয়ামী লীগের (সাবেক) সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন।
আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, আমার মেধা, কর্ম প্রয়াস শ্রম ও অধ্যাবশায়ের মাধ্যমে ব্যবস্থাপনাগত দক্ষতা অর্জনের মধ্যদিয়ে তানোর উপজেলা কে এক নতুন উজ্জ্বল অধ্যায়ে নিয়ে যাবো। এবং এলাকার উন্নয়ন,সমাজ সেবা,ক্রীড়া ও সামাজিক-সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডে দীর্ঘদিন ধরে তিনি নিজেকে সম্পৃক্ত রেখে চলেছেন বলে জানান।ফলে উপজেলা জুড়ে সাধারণ মানুষ বিশেষ করে তরুণ প্রজন্মের মধ্যে তার একটা পরিচ্ছন্ন ও নিজ্বস্ব ব্যক্তি ইমেজ তৈরী হয়েছে। এবার তরুণ প্রজন্ম তাদের প্রতিনিধি হিসেবে জননেতা ও কর্মী বান্ধব তরুণ নেতৃত্ব আবদুল্লাহ আল মামুন কে বেছে নিয়েছেন। কারন ২টি পৌরসভা ও ৭টি ইউপির এবং বিভিন্ন এলাকার ভোটাররা বলেন এবার আমরা যেকোনো মুল্য আপনাকে দলমত নির্বিশেষে আমরা সবাইমিলে ভোট দিয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান বানাবো। সাধারণ মানুষ আরো বলেন এবার তানোর উপজেলার সব জায়গায় শুনা যাচ্ছে আবদুল্লাহ আল মামুনের নাম। এবার উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল মামুন তার বিজয়ের সম্ভবনা অত্যন্ত উজ্জল বলে মনে করছেন সাধারণ জনগণ। ইতমধ্যে প্রচার-প্রচারণা ও উঠান বৈঠকে তিনি জনসাধারণের কাছে দোয়া ও ভোট চেয়ে বলেন,বিজয়ী হলে আমার যোগ্যতা ও দক্ষতা দিয়ে উপজেলার অবহেলিত জনগণের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে নিজেকে নিয়োজিত রাখবেন। এই জন্য সকলের কাছে তিনি দোয়া,সমর্থন ও সহযোগীতা প্রত্যাশা করেছেন।
এদিকে তৃণমুলের নেতাকর্মী-সমর্থক বিশেষ করে তরুণ প্রজন্মের আকুন্ঠ সমর্থন আবদুল্লাহ আল মামুন কে বিজয়ের ব্যাপারে আশাবাদী করে তুলেছে। এ বিষয়ে আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন,আমি নির্বাচিত হলে তানোর উপজেলা বাসী কে সঙ্গে নিয়ে বিভিন্ন উন্নয়ন কর্ম কান্ড গ্রহণের মাধ্যমে তানোরকে স্মার্ট উপজেলা হিসেবে গড়ে তুলবো। এলাকায় কর্মমুখী শিক্ষার মাধ্যমে বেকারত্ব নিরসন,সাধারণ মানুষের দুঃখ-কষ্ট লাঘবে রাস্তাঘাটসহ বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কর্মকাণ্ড,মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করবো। তিনি আরো বলেন, সরকারের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আওয়ামী লীগের কোন বিকল্প নেই, তিনি সকলে মিলে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মা মানে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান।

Leave A Reply

Your email address will not be published.