তোর ‘খোঁচা মারা’ একদমই পছন্দ করলাম না, নিশোকে নিরব

0 ১৪৫

সম্প্রতি ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে নিশোর উদ্দেশে প্রশ্ন ছিল— দিন কয়েক আগেই বলেছেন, আপনি বউ-বাচ্চা লুকিয়ে রাখার মতো নায়ক নন। ইঙ্গিত কি বিশেষ কারও দিকে?

জবাবে আফরান নিশো উত্তর দেন, ‘আমি আমার দর্শনের কথা বলেছি। দর্শনে সংঘর্ষ আসতে পারে। আমি বিবাহিত হলে, সকলকে বলেই দেব। হয়তো আমার স্ত্রীকে সর্বদা প্রকাশ্যে আনব না। তবে লুকিয়েও রাখব না। ব্যক্তিজীবনকে লুকিয়ে রাখায় বিশ্বাসী নই। আমার বন্ধু নীরব, ইমন ব্যক্তিজীবনকে অন্তরালে রেখেছেন। সেটা তাদের ক্যারিয়ারে যে খুব সাহায্য করেছে, এমনটা নয়। সুপারস্টার, মেগাস্টার যা-ই হোক না কেন, তার সবটা মিলিয়ে দর্শক তাকে অনুসরণ করেন। আসলে হিরোর ধারণাটা শুধু আমাদের দেশে আছে। হিরো আসেন, বসেন; একটার জায়গায় পাঁচটা চেয়ার দেওয়া হয়। আমার কাছে হিরো বলাটা বড্ড ফেক মনে হয়। হিরো এবং অভিনেতার মধ্যে বৈষম্য তৈরি করাটা আমার দর্শন অনুমতি দেয় না। কেউ যদি উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে গায়ে মাখেন, সেটা দুর্ভাগ্যজনক’।

নিশোর এমন উত্তরে চিত্রনায়ক নিরব ও ইমনের নাম আসা ও ব্যক্তিগত হওয়ায় এতে চটেছেন তারই বন্ধু নিরব। এ প্রসঙ্গে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে দীর্ঘ এক পোস্ট দিয়ে পাল্টা জবাব দিলেন তিনি।

নিশোকে বন্ধু সম্বোধন করে নিরব পোস্টে লেখেন, আমার নাম উল্লেখ করে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার’র অনলাইন সংস্করণের ইন্টারভিউতে দেখলাম আফরান নিশো বলেছে, আমি ব্যক্তিজীবন অন্তরালে রেখেছিলাম! বন্ধু হিসেবে নিশোকে বলতে চাই, তুই আমাকে নিয়ে এমন মন্তব্য কেন করলি? আমি তোর এই ধরনের ‘খোঁচা মারা’ মন্তব্য একদমই পছন্দ করলাম না।

তোর ‘খোঁচা মারা’ একদমই পছন্দ করলাম না, নিশোকে নিরব

দেশীয় গণমাধ্যমের সংবাদকর্মীদের ভূয়সী প্রশংসা করে এই চিত্রনায়ক আরও লেখেন, ‘দীর্ঘ-বছর যাবৎ আমি মডেলিং ও ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করে যাচ্ছি।

সংবাদকর্মী ও শুভাকাঙ্ক্ষীরা যারা আমাকে পছন্দ করেন; তারা আমার বিয়ে, বউ ও সন্তানের বিষয়টি ভালোভাবে অবগত। আমার ব্যক্তি জীবনের প্রায় প্রতিটি বিশেষ ঘটনা সংবাদকর্মীরা যত্ন সহকারে দেশের মানুষের কাছে তুলে ধরেছেন। সংবাদকর্মী ও শুভাকাঙ্ক্ষীদের কাছে আমি ব্যক্তিগত জীবনের কোনোকিছু লুকাইনি। সংবাদকর্মী ভাই-বন্ধুদের অনেক অজানাও জেনে থাকেন। তাদের উদ্দেশে আমি বলতে চাই, আপনারা কি জানেন নিশো কবে বিয়ে করেছে বা তার স্ত্রী ও সন্তানকে নিয়ে কবে প্রকাশ্যে এসেছে? বন্ধু হয়ে আমি তো কখনও দেখিনি! তাহলে ব্যক্তিগত জীবন অন্তরালে কে রেখেছে, আমি নাকি নিশো?

‘আমি এবং নিশো একসময় একসঙ্গে মডেলিং করেছি। আমাদের অনেক স্মৃতি। নিশো তোর সঙ্গে আমার সম্পর্ক কেমন, প্রথম সিনেমা মুক্তির পরেই তুই হয়তো ভুলে গেছিস! বন্ধু হিসেবে বলছি, তুই অন্যকে ইঙ্গিত দিয়ে যেসব কথাবার্তা বলছিস, জেনে-বুঝে বল। তুই তোর ফিলোসফি নিয়ে থাক, সেখানে অন্যকে আঘাত করতে যাস কেন? আশা রাখছি, ভবিষ্যতে তুই তোর ভুল শুধরে নিবি।’

প্রসঙ্গত, এই মুহূর্তে নিশো কলকাতায় আছেন। শুক্রবার (২১ জুলাই) সেখানে মুক্তি পেয়েছে সিনেমা ‘সুড়ঙ্গ’। এতে তার বিপরীতে আছেন তমা মির্জা। ছবিটি পরিচালনা করেছেন রায়হান রাফী।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.