দান করে বিতর্কে অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী

564

10447_vikkhukআন্তর্জাতিক ডেস্ক : এক ভিক্ষুককে ডলার দান করে বিতর্কে জড়িয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী ম্যালকাম টারনবুল। গতকাল অর্থনীতি বিষয়ক এক বক্তৃতা দেওয়ার উদ্দেশ্যে অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নের ফুটপথ দিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি। পথে এক ভিক্ষুককে দেখে দাঁড়িয়ে তার সঙ্গে হাত মেলান এবং সামনে থাকা কাপে পাঁচ ডলার দান করেন।
ক্যামেরায় ধরা পরা ওই ডলার দান করার দৃশ্যতেই ঘটালো বিপত্তি! মূলত ওই ছবির কারণেই বিতর্কে জড়িয়েছেন তিনি। সমালোচিতও হতে হয়েছে নাগরীক সমাজের কাছে। ম্যালকাম টারনবুলের এই উদারতা দেখানো ঘিরে অল্পসময়ের মধ্যেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শুরু হয় তীব্র সমালচনা। চলে বিভিন্ন দৃষ্টিকোণ থেকে প্রধানমন্ত্রীর সমালোচনা।
এদিকে, সমালোচকদের অনেকেই প্রধানমন্ত্রীকে একজন ‘কৃপণ’ মানুষ হিসেকে দেখছেন। তাদের মতে প্রধানমন্ত্রী একজন বিত্তশালী। কিন্তু এভাবে মাত্র পাঁচ ডলার দান করায় তার কৃপণতাই প্রকাশ পেয়েছে।
অস্ট্রেলিয়ার সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইলের এক প্রতিবেদনেও প্রধানমন্ত্রীকে একজন কৃপণ ব্যক্তি হিসেবে দেখানো হয়েছে।
মেলবোর্নের মেয়র রবার্ট ডোয়েল এ বিষয়ে বলেছেন, ‘এভাবে  ভিক্ষুকদের হাতে অর্থ দেওয়া হলে তাদের মধ্যে মাদক সেবনের প্রবণতা বাড়তে পারে। ফলে দরিদ্রতা আরও বাড়ার সুযোগ পাবে।’
অনেকে আবার এটিকে প্রধানমন্ত্রীর ক্যামেরার সামনে নিজের উদারতা দেখানোর জন্য লোক দেখানো দান বলেও সমালোচনা করছেন।
অবশ্য ভিক্ষুককে সাহায্য করার বিষয়টিকে ইতিবাচক হিসেবেও দেখছেন কেউ কেউ, তারা বলছেন, ‘আমি তাকে দেখছি এমনভাবে যিনি কাউকে দান করছেন।’
দানের ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় প্রধানমন্ত্রী ম্যালকাম টারনবুল রেডিওতে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘ভিক্ষারত লোকটিকে দেখে আমি কষ্ট পেয়েছিলাম। এটা ছিলো তার প্রতি আমার মানবিক আচরণ মাত্র।’ব্রেকিংনিউজ

x