দুর্গাপুরকে ভূমি ও গৃহহীন মুক্ত ঘোষণা, ৪র্থ পর্যায়ে ঘর পেলেন ৩২০টি পরিবার

0 ১২৯
দুর্গাপুর প্রতিনিধি: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহারের ঘর পেয়ে বেজায় খুশি হয়েছেন দুর্গাপুর উপজেলার ৩২০টি ভূমিহীন ও গৃহহীন  পরিবার। মাথাগোঁজার ঠাঁই পেয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য প্রাণভরে দোয়া করেছেন ভূমি ও গৃহহীন এসব মানুষ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভার্চুয়ালি সংযুক্ত হয়ে যখন তালিকা হাতে নিয়ে প্রতিটি উপজেলার নাম ঘোষণা করছিলেন ঠিক সে সময় বড় পর্দা থেকে কিছুতেই চোখ সরাচ্ছিলেন না ভূমি ও গৃহহীন মানুষগুলো। দুর্গাপুর উপজেলার নাম ঘোষণা হওয়ার সাথে সাথে আনন্দ উল্লাসে ফেটে পড়েন এখানকার সুবিধাভোগী সহ বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষ। এক ধরনের উৎসবমূখর আমেজের সৃষ্টি হয় অনুষ্ঠানস্থলে।
বুধবার সকালে উপজেলা পরিষদ হলরুমে ৪র্থ পর্যায়ে জমি ও গৃহ হস্তান্তর এবং দূর্গাপুর উপজেলাকে গৃহহীনমুক্ত ঘোষণা অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন উপজেলা প্রশাসন।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার জিএসএম জাফরুল্লাহ এনডিসি।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভার্চুয়ালি সংযুক্ত থেকে আজকে রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলাকে ভূমি ও গৃহহীন মুক্ত ঘোষণা করলেন। ইতিমধ্যে রাজশাহীর তিনটি জেলাকে ভূমিহীন ও গৃহহীন মুক্ত ঘোষণা করা হয়েছে। আশাকরছি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় আগামী জুন-জুলাই মাসের মধ্যে রাজশাহী বিভাগকে ভূমিহীন ও গৃহহীন মুক্ত ঘোষণা করা সম্ভব হবে। ভূমি ও গৃহহীন মানুষগুলো মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার উপহারের ঘর পেয়ে যেভাবে আনন্দে উদ্বেলিত হয়েছেন তা সত্যিই বিস্ময়কর।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোহেল রানার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন রাজশাহীর জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা নজরুল ইসলাম, পৌরসভার মেয়র সাজেদুর রহমান মিঠু, সহকারী কমিশনার (ভূমি) কৃষ্ণ চন্দ্র ও দুর্গাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ নাজমুল হক।
অনুষ্ঠানের শুরুতেই বাদ্যযন্ত্রের তালে তালে ফুল দিয়ে বরণ করে নেয়া হয় অতিথিদের। পরে উপজেলা পরিষদ হলরুমে ভূমি ও গৃহহীনদের মাঝে চাবি হস্তান্তর করা হয়।
বীর মুক্তিযোদ্ধা, শিক্ষক সমাজ, সুশীল সমাজ, সরকারি সকল দপ্তরের প্রধান সহ নানা শ্রেণীপেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন ওই অনুষ্ঠানে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.