দুর্গাপুরে রাস্তা নির্মানে বাঁধা দেওয়ায় দিনমজুরকে মারপিট অভিযোগ

0 ১৪২

 নিজস্ব প্রতিবেদক,  রাজশাহী:  রাজশাহীর দুর্গাপুরে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে হতদরিদ্র দিনমজুরকে মারপিট করে জমির গাছ কেটে জোরপূর্বক রাস্তা নির্মানের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় আহতদের দুর্গাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার বেলঘরিয়া গ্রামে।

 

 

এ ঘটনায় আহতরা হলেন, আবুল কাশেম (৪৫), দারেকজান (৫০) ইমরান ( ২৮)। আহত আবুল কাশেম জানান, ১৫ মার্চ সোমবার সকাল ৭ টার দিকে বেলঘড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুস সাত্তার মাষ্টার, সহদর ভাই আঃ সামাদ, কামরুল সহ ৭ থেকে ৮ জন আমার বাড়িতে এসে অতর্কিত ভাবে লাঠিসোটা দিয়ে বাড়ির লোকজন এর উপরে আক্রমণ চালায় এতে মহিলাসহ ৩ জন আহত হয়।

 

 

ঘটনাটি জানাজানি হলে গ্রামের লোকজন উপস্থিত হয়ে আহত ব্যক্তিদের চিকিৎসার জন্য দুর্গাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ সময়ে দারেকজান (৫০) ইমরান ( ২৮) কে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাড়ি ফিরে বাড়িতে পাঠানো হয়েছে। আর আবুল কাশেম গুরুতর অসুস্থ কারণে দুর্গাপুর মেডিকেলে ভর্তি হয়েছে তাঁর চিকিৎসা চলছে।

 

 

উল্লেখ্য, গত ১২ মার্চ শুক্রবার বেলঘড়িয়া পূর্বপাড়ার মৃত উমেদ আলী মাষ্টারের ছেলে বেলঘড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুস সাত্তার তাঁর বাড়ীতে প্রবেশের রাস্তা নির্মান করার জন্য আমার জমিতে থাকা আমগাছ, নারিকেল গাছ, খেজুর গাছ সহ প্রায় ১০থেকে ১২টি গাছ জোরপূর্বক কেটে রাস্তা নির্মান শুরু করে। দিনমজুর লুৎফর আলী কাজ শেষে বাড়ী ফিরে দেখে তাঁর জমির গাছ গুলো কেটে ফেলা হয়েছে। পরদিন শনিবার সকালে প্রধান শিক্ষক আব্দুস সাত্তারের নিকট গাছ কেন কাটা হলো জানতে চাইলে লুৎফরকে মারপিট করার হুমকি দেয়।

 

 

এবিষয়ে জমির মালিক লুৎফর রহমান বলেন, গত ১৩ মার্চ শনিবার পুলিশের উপস্থিতিতে সাত্তার মাষ্টার ও তার ভাই কামরুল ও সামাদ আমাকে মারপিট করে। পরে ১৫ মার্চ আবারো তারা আমার পুরো পরিবারকে মারপিট করে আহত করে। বর্তমানে আমি পরিবার পরিজন নিয়ে চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছি। আমি এবিষয়ে প্রশাসনকে জানালেও ব্যবস্থা গ্রহন করন নি।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.