দুর্গাপুরে স্থানীয় এক বিএনপি সমর্থকের বিরুদ্ধে নারী ইউপি সদস্যকে বিবস্ত্র করে পেটানোর অভিযোগ

0 ৪৯

দুর্গাপুর প্রতিনিধি: রাজশাহীর দুর্গাপুরে বিএনপি সমর্থকদের বিরুদ্ধে আঙ্গুরা বেগম নামের এক নারী ইউপি সদস্যকে বিবস্ত্র করে পেটানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। রবিবার ইফতার পরবর্তী সময়ে দুর্গাপুর উপজেলার চৌপুকুরিয়া ওয়াজের মোড় নামকস্থানে এই ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত নারী ইউপি সদস্য অসহ্য ব্যাথা ও যন্ত্রনায় কাতরাচ্ছে দুর্গাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বিছানায়। বিবস্ত্র করে মারপিট ও শ্লীলতাহানীর অভিযোগ এনে ইউপি সদস্যদের স্বামী আব্বাস আলী বাদী হয়ে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে দুর্গাপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে ।

থানায় দায়েরকৃত অভিযোগ সূত্রে জানাযায়, দুর্গাপুর উপজেলার চৌপুকুরিয়া ওয়াজের মোড়ে পাওনা টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে স্থানীয় বিএনপি সমর্থক মনির উদ্দিনের পুত্র রেজা (৪৫) দুর্গাপুর উপজেলার ঝালুকা ইউনিয়ন পরিষদের ৭,৮,৯ নং ওয়ার্ড সংরক্ষিত আসনের নারী ইউপি সদস্য আঙ্গুরা বেগম এর নাতি জামাই শাহীনের সাথে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে শাহীনকে এতাপাথারিভাবে পেটাতে থাকলে প্রানবাঁচাতে শাহীন দৌড়ে মোড়ের পাশের্^ই নারী ইউপি সদস্য আঙ্গুরা বেগমের বাড়ীতে গিয়ে আশ্রয় নেয়। সেখানেও মারতে চলে আসে বিএনপি সমর্থক রেজা ও তার পুত্র ইমন ও রেজার ভাগ্নে আসাদুল ইসলাম। পরে নারী ইউপি আঙ্গুরা বেগম নাতি জামাই শাহীনকে কেন মারপিট করা হচ্ছে তাদের কাছে জানকে চাইলে তারা বলে শাহীনকে বাড়ী থেকে বের করে আমাদের হাতে তুলে দে না হলে তোকেও পেটানো হবে।

বিএনপি সর্মথক রেজা, ঈমন, আসাদুল নারী ইউপি সদস্যকে মারতে চাইলে ইউপি সদস্যের পুত্র আশিক (২৩) তাদেরকে ওখান থেকে চলে যেতে বললে তারা আশিকের ওপর আক্রমন করে গলা টিপে হত্যার চেষ্টা করে। এসময় নারী ইউপি সদস্য আঙ্গুরা বেগম তাদের হাত থেকে ছেলে আশিককে বাঁচাতে এগিয়ে আসলে বিএনপি সমর্থক রেজা ও তার পুত্র ঈমন ও ভাগ্নে আসাদুল ইসলাম প্রকাশ্যে জনসম্মূখে নারী ইউপি সদস্য আঙ্গুরা বেগমকে লাঠিসোটা দিয়ে এলাপাথাড়ি মারপিট করতে করতে বিবিস্ত্র করে ফেলে। এসময় স্থানীয় প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে তাদের উদ্ধার করে দুর্গাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স্রে ভর্তি করে।

বর্তমানে দুর্গাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স্রের বিছানায় ব্যাথা ও অসহ্য যন্ত্রনায় কাতরাচ্ছে ঝালুকা ইউনিয়ন পরিষদের নারী ইউপি সদস্য আঙ্গুরা বেগম। ২৫ মার্চ সোমবার নারী ইউপি সদস্যের স্বামী আব্বাস আলী বাদী হয়ে দুর্গাপুর থানায় বিবিস্ত্র করে মারপিট ও শ্লীলতাহানীর অভিযোগ দায়ের করেন।  এ বিষয়ে দুর্গাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খায়রুল ইসলাম বলেন, ঝালুকা ইউনিয়ন এক নারী ইউপি সদস্যকে মারপিট ও শ্লীলতাহানীর অভিযোগ পেয়েছি, অভিযোগ তদন্ত করে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.