দেনমোহর-বিয়ের তারিখ নিয়ে বিতর্ক, শাকিব না অপু সঠিক?

0 421

আলমগীর, বিনোদন : অপু বিশ্বাসকে ডিভোর্স লেটার পাঠিয়েছেন ২২ নভেম্বর শাকিব খান। ডিভোর্স লেটারে শাকিব খান বিয়ের তারিখ উল্লেখ করেছেন ১৬ মার্চ, ২০০৮। অথচ অপু বিশ্বাস এতদিন তাদের দুজনের বিয়ের তারিখ বলে আসছিলেন ১৮ এপ্রিল, ২০০৮। একইসঙ্গে দেনমোহরের অংক নিয়েও দুজন ভিন্ন কথা বলছেন। তাহলে কার কথা সঠিক।
অপু বিশ্বাস ফোন ধরে প্রথমে বললেন,

-সেখানে তো ১৮ এপ্রিল বলেছেন। তাহলে কি আমরা ১৮ এপ্রিল সঠিক ধরে নেব?

-এটা নিয়ে আসলে আমি কোনো কথাই বলতে চাইছি না।

অপু বিশ্বাস এড়িয়ে যেতে চাইলেও প্রথমে কিন্তু ১৮ এপ্রিল তারিখটি সঠিক এ ব্যাপারে ইঙ্গিত দিয়েছেন।

এরপরে একইসঙ্গে বিতর্ক উঠেছে কাবিনামায় থাকা দেনমোহরের অংক নিয়ে। শাকিব বলছেন, তাদের দেনমোহর সাত লাখ টাকা। কিন্তু অপু বিশ্বাস বলছেন, ১ কোটি ৭ লাখ টাকা।

গত দুদিন ধরে অপু বিশ্বাস বলছিলেন, ‘যদিও আমার কাছে কাবিননামার কোনো কপি নেই, তারপরও মনে পড়ছে কাবিননামায় ১ কোটি ৭ লাখ টাকাই উল্লেখ ছিল। আমাকে ডিভোর্স দিলে এই অংকের টাকাই দিতে হবে।’

কিন্তু হুট করে আজ শনিবার অপু এ ব্যাপারে কথা বলতে নারাজ। তিনি বলছেন, ‘আমি এটা নিয়েও আর কথা বলতে চাইছি না। সময় হোক, তখন কথা বলব।’

শাকিব ভারতের হায়দরাবাদে আছেন রাশেদ রাহা পরিচালিত ‘নোলক’র শুটিংয়ে। সেখান থেকে বিয়ের তারিখ নিয়ে কথা না বললেও দেনমোহরের অংক নিয়ে বলেন, ‘অপু নতুন করে জালিয়াতির আশ্রয় নিতে যাচ্ছে। ৭ লাখ ১ টাকাকে সে উল্টে ১ কোটি ৭ লাখ টাকা বানাতে চাইছে। দেনমোহর যদি ১ কোটি টাকাও হয় এরপর ভাঙা টাকা হিসেবে ৭ লাখ টাকা কেমন করে হবে। নিশ্চয়ই একটি রাউন্ড ফিগার হওয়ার কথা। তার এই জালিয়াতির অপরাধে তাকে আইনগতভাবে শাস্তি পেতে হবে।’

দুজনের বক্তব্যে এক ধরনের ধোঁয়াশা থেকে যাচ্ছে। এখন শাকিব-অপুর বিয়ের কাবিননামা মিডিয়ার সামনে প্রকাশ হলেই এ সম্পর্কিত সকল প্রশ্নের উত্তর মিলে যাবে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.