নওগাঁয় অটোরিকশা চালককে হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার ২

0 ১০০

নওগাঁ প্রতিনিধি: নওগাঁর মান্দায় অটোরিকশা চালককে হত্যার অভিযোগে চারদিন পর দুই যুবককে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। বুধবার (২৩ আগস্ট) ভোরে টাংগাইল থেকে র‌্যাব-৫ এবং র‌্যাব-১৪ যৌথ অভিযানে তাদের গ্রেফতার করে। বেলা সাড়ে ১১টায় র‌্যাব-৫ জয়পুরহাট থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি থেকে এ তথ্য জানা যায়।

অটোরিকশা চালক গোলাম রাব্বানী (৩৫) মান্দা থানার গনেশপুর ইউনিয়নের  শ্রীরামপুর গ্রামের আব্বাস উদ্দন সরদারের ছেলে। গ্রেফতাররা হলেন- মান্দা থানার শ্রীরামপুর গ্রামের মজিবর রহমানের ছেলে নাহিদ হোসেন (১৯) এবং জেলার পত্নীতলা থানার শিবপুর গ্রামের কবির হোসেনের ছেলে তুহিন (২০)।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়- ব্যাটারি চালিত অটোরিকশার চালক গোলাম রাব্বানী। প্রতিদিনের মত তিনি গত ১৪ আগস্ট সকাল ৯টার দিকে অটোরিকশা নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে যান। ওইদিন দুপুর ২টার পর থেকে তার মুঠোফোন বন্ধ পাওয়া যায়। পরবর্তীতে স্থানীয় জিগাতলা ব্র্যাক ব্যাংকের সিসি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা যায় সকাল ১০টা ২ মিনিটে নিখোঁজ রাব্বানী তার অটোরিকশায় একই এলাকার নাহিদ ও তুহিনকে নিয়ে জেলার মহাদেবপুর থানার দিকে যাচ্ছিলেন।

এর দুইদিন পর সিসি ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহের সংবাদ এলাকায় ছড়িয়ে পড়ার পর নাহিদ ও তুহিন গা ঢাকা দেয়। ১৭ আগস্ট ভিকটিমের বাবা বাদী হয়ে মান্দা থানায় একটি অপহরনের মামলা দায়ের করেন। পরদিন বিকেলে জেলার মহাদেবপুর উপজেলার সাগরইল বাজার সংলগ্ন গুনদইল খাড়ির ব্রিজ এলাকা থেকে গোলাম রাব্বানীর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ঘটনার পর থেকে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করলে আসামীরা এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যায়।

আরো বলা হয়- মামলা রুজুর পর থেকেই আসামীদের গ্রেফতারের জন্য র‌্যাব-৫ বিভিন্ন গোয়েন্দা নজরদারি অব্যাহত রাখে এবং বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করে। পরবর্তীতে আসামীরা এলাকা ছেড়ে পালিয়ে টাংগাইলে অবস্থান নিলে গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে যৌথ অভিযানে র‌্যাব-৫ ও র‌্যাব-১৪ হত্যাকান্ডের মুলপরিকল্পনাকারী নাহিদ ও তুহিন কে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

মান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী মোজাম্মেল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন- আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করতে থানায় হস্তান্তর করার প্রক্রিয়া চলছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.