নন্দনগাছী বাজারে দোকানের টিন কেটে চুরি

0 ৯৬

চারঘাট (রাজশাহী) প্রতিনিধি: রাজশাহী জেলার চারঘাট উপজেলা সর্ব বৃহৎ বাজার নন্দনগাছী, প্রায় মাঝে মাঝে ছোট বড় চুরির ঘটনা ঘটে অত্র বাজারে। গত ২০২২ সালের শুরুতে অত্র বাজারে নয়ন স্পর্টস এর দোকানে ও আলমগীর টেলিকমে চুরির ঘটনা ঘটে সেই বার আলমগীর টেলিকম থেকে চুরি করতে না পারলেও নয়ন স্পর্টস এর দোকার হতে ফুটবল খেলার বুট ৪০ জোড়া, ফুটবল ২০টি ও দোকানের জার্সিসহ প্রায় ৭০/৮০ হাজার টাকার মালামাল চুরির ঘটনা ঘটে।

এর পরে ০২-০৮-২০২২ ইং তারিখ দিবাগত রাতে প্রিয়াংকা জুয়েলার্স দোকানের টিন কেটে ক্যাশ কাক্সে থাকা নগদ- ১,২,০০০/- (এক লক্ষ বিশ হাজার) টাকা ১ভরি ০৮ আনি স্বর্ণ এবং ৭২ ভরি রুপা সহ অন্যান্য মালা মাল চুরি হয়। এর পরে গত ১৫-০৪-২০২৩ ইং তারিখে “মা ডিজিটাল স্টুডিও” হতে প্রায় চল্লিশ হাজার টাকা চুরির ঘটনা ঘটে। আবারো ০৫-০৪-২০২৪ তারিখ দিবাগত রাত আনুমানিক ৪টার দিকে আলোমগীর টেলিকমে চুরির ঘটনা ঘটে।

দোকানে চুরির সময় পার্শ্বের দোকানে অবস্থানরত মুকুল নামের এক ব্যাক্তি আলোমগীর টেলিকম দোকানের ভেতরে জোরে জোরে শব্দ শুনতে পেয়ে দোকানের কাছে গিয়ে কান পেতে ভেতরে কারো উপস্থিতি টের পেয়ে অত্র বাজারের নাইট গার্ডদের বিষয়টি অবগত করলে দোকান ঘেরাও করে হাতে নাতে ধরে ফেলে চোরকে। পরে চোরের জবান বন্দিতে আরো চানচল্যকর ঘটনা উঠে আসে।

চোরের নাম শহিদুল গ্রাম বাশবাড়ী দুর্গাপুর, সে জোয়া খেলার জন্য পাটিয়াকান্দিতে প্রায় আসা যাওয়া করতো সেখানে জোয়ার বোর্ডের পরিচালক মোঃ হাপু, মোঃ খলিল নামের দুই জনে প্রায় পঞ্চাশ হাজার টাকা পাওনা হয় শহিদুলের কাছ থেকে। শহিদুল আরো জানায় তার বাসা থেকে তার স্ত্রীর সোনার গহনা এনে সেগুলোও জোয়ার বোর্ডে হেরে যায়। সবকিছু হারিয়ে যখন দিশে হারা সেই সময় মোঃ হাপু, মোঃ খলিল নামের দুই জন তাকে নন্দনগাছী বাজারের আলোমগীর টেলিকমের দোকানে চুরির পরামর্শ দেয়।

তারের পরামর্শ্বে টেলিকমের দোকানে চুরির করতে ঢুকে হাতে নাতে ধরা পড়ে চোর শহিদুল। পরোবর্তীতে বাজার কমিটির সভাপতি মোঃ রেজাউল করিম থানায় ফোন দিয়ে পুলিশের হাতে তুলেদেয়।

Leave A Reply

Your email address will not be published.