নাটোরের বিভিন্ন স্থান থেকে ৯ ডাকাত গ্রেফতার

0 ৭৭

সোহেল রানা ,নাটোর প্রতিনিধি: এক গরু ব্যাবসায়ীকে হত্যা ও ৪ ব্যাবসায়ীকে পিটিয়ে জখম করে সাড়ে ১৪ লাখ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে নাটোরের বড়াইগ্রামে ফেলে দেওয়ার ঘটনায় নাটোরের বিভিন্ন স্থান থেকে ৯ ডাকাত সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতরাতে নাটোর জেলার লালপুর,বড়াইগ্রাম ও গুরুদাসপুরের বিভিন্ন স্থান থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

এ সময় ডাকাতির কাজে ব্যাবহৃত একটি ট্রাক জব্দ ও প্রায় ৫ লাখ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। গতরাতে তাদের গ্রেফতার করা হলে ও রবিবার দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে নাটোরের পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এ সব তথ্য জানান পুলিশ সুপার সাইফুর রহমান।

পুলিশ সুপার বলেন, ঈদের আগের রাতে ঢাকার আফতাব নগর হাটে গরু বিক্রি করে একটি ট্রাকে উঠে বগুড়ায় ফিরার জন্য। ট্রাকে উঠার পর পরই যাত্রী বেশে ট্রাকে থাকা কয়েকজন তাদের মারধর করে দড়ি দিয়ে বেঁধে ফেলে। পরে তাদের কাছে থাকা টাকাগুলো ছিনিয়ে নেয়।

এ সময় তাদের মারধরে শহিদুল ইসলাম মারা গেলে ট্রাকের চালক ট্রাকটি নাটোরের বনপাড়া-হাটিকুমরুল মহাসড়কের আগ্রান এলাকায় থামিয়ে তাদের ট্রাক থেকে ফেলে দিয়ে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহটি সহ আহতদের উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় মামলা দায়েরের পর পুলিশ ঘটনার রহস্য উদঘাটনে মাঠে নামে। পরে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় পুলিশের কয়েকটি টিম জেলার লালপুর,বড়াইগ্রাম ও গুরুদাসপুরে অভিযান চালিয়ে ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতার করে। এ সময় ডাকাতির কাজে ব্যাবহৃত ট্রাক ও নগদ প্রায় ৫ লাখ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনার সাথে আরো কেউ জড়িত আছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.