ন্যাটোর ‘স্পষ্ট এবং দ্ব্যর্থহীন’ আমন্ত্রণ চায় ইউক্রেন

0 ২১৫
ছবি- সংগৃহীত

জার্মানিতে ইউক্রেনের রাষ্ট্রদূত একটি সাক্ষাৎকারে বলেছেন, তার দেশ চায়, সামরিক জোটে যাতে কোনোরকম অস্পষ্টতা না থাকে৷ এদিকে, আগামী সপ্তাহে ন্যাটো সম্মেলনের আগে ইউরোপ সফর করবেন বাইডেন৷ ন্যাটো সদস্য দেশগুলো তাদের বার্ষিক শীর্ষ সম্মেলনের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে৷ রাশিয়ার আগ্রাসন শেষ হলে নিজেদের চূড়ান্ত সদস্যপদ নিয়ে সামরিক জোট থেকে স্পষ্ট অঙ্গীকারের জন্য চাপ অব্যাহত রেখেছে ইউক্রেন৷

জার্মানির ডিপিএ বার্তা সংস্থাকে জার্মানিতে ইউক্রেনের রাষ্ট্রদূত ওলেক্সি মাকেইয়েভ ন্যাটোকে এই বিষয়ে অস্পষ্টতার অবসানের আহ্বান জানিয়েছেন৷ তার কথা, ‘ভিলনিয়াসে শীর্ষ সম্মেলনে, আমরা ন্যাটোতে যোগদানের জন্য একটি স্পষ্ট, দ্ব্যর্থহীন আমন্ত্রণ এবং নির্দেশনা আশা করি৷’

২০০৮ সালে বুখারেস্টে ন্যাটো শীর্ষ সম্মেলনের সময় যে ভুল হয়েছিল, তার যেন পুনরাবৃত্তি না হয়, এমনটাই বলেন মাকেইয়েভ৷

শীর্ষ সম্মেলনের সময়, জোট যখন কিইভের সদস্যপদ আকাঙ্ক্ষাকে স্বাগত জানায়, তখন-জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা মের্কেল জোটে দেশটির দ্রুত যোগদানের বিরোধিতা করেন৷ তিনি ডিপিএকে বলেন, ‘যদি ইউক্রেন ইতিমধ্যে ২০১৪ সালে ন্যাটোর সদস্য হয়ে যেতো, তাহলে ক্রিমিয়ান সংযুক্তিকরণ, ডনবাসের যুদ্ধ, রাশিয়ার এই আগ্রাসন থেকে যুদ্ধ এসব কিছুই হতো না৷ ইউরোপের বিরুদ্ধে রুশ আগ্রাসন বন্ধ করার একমাত্র উপায় হল ২০২৩ সালের ন্যাটো শীর্ষ সম্মেলন থেকে একটি শক্তিশালী বার্তা দেওয়া৷’

ন্যাটো প্রধান জেনস স্টলটেনবার্গ ইতিমধ্যে ইঙ্গিত দিয়েছেন, লিথুয়ানিয়ার রাজধানীতে আসন্ন শীর্ষ সম্মেলনে কিয়েভকে যোগদানের জন্য আনুষ্ঠানিক আমন্ত্রণ জানানো হবে না৷

ভাগনার বিদ্রোহে রুশ সংবাদমাধ্যমে নানা প্রতিক্রিয়া

যুক্তরাজ্যের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলছে, ভাগনার বিদ্রোহ রুশ সংবাদমাধ্যমকে চমকে দিয়েছে৷ মন্ত্রণালয় বলেছে, রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিক্রিয়া তিনটি পর্যায়ে এসেছিল৷ ‘প্রাথমিকভাবে, তারা অবাক এবং অপ্রস্তুত ছিল৷ তা সত্ত্বেও রাশিয়ান টিভি তার স্বাভাবিক সময়সূচি বজায় রেখেছে৷’

একবার বিদ্রোহ শেষ হয়ে গেলে, রাশিয়ান মিডিয়া নিরাপত্তা বাহিনীর নিষ্ক্রিয়তা সংক্রান্ত দাবিগুলি ‘ঠিক’ করার চেষ্টা করেছিল৷ একই সঙ্গে তারা প্রচার করেছিল, রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুটিন ‘রক্তপাত এড়িয়ে বিদ্রোহকে ব্যর্থ করে জয়ী হয়েছেন৷’

ব্রিটিশ মন্ত্রকের মতে, তৃতীয় এবং চূড়ান্ত পর্যায়টি এক সপ্তাহ পরে আসে৷ এতে প্রিগোঝিনের তাৎপর্য, তার বিদ্রোহের তাৎপর্যকে খাটো করা হয়৷ প্রিগোঝিনের খ্যাতিকেও কলঙ্কিত করার চেষ্টা করেছিল সংবাদমাধ্যমগুলো৷

ভাগনারের টেলিগ্রাম চ্যানেলগুলোর নীরবতাও উল্লেখ করা হয়েছে৷ রাষ্ট্রের হস্তক্ষেপের ফলে এটি আচমকাই ঘটেছিল বলে দাবি করেছে যুক্তরাজ্যের মন্ত্রণালয়৷

ঝাপোরিজঝিয়া প্লান্ট নিয়ে আলোচনার জন্য ন্যাটোকে আহ্বান রাশিয়ার

রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাখারোভা ন্যাটো সদস্যদের তাদের শীর্ষ সম্মেলনের সময় ইউক্রেনের ঝাপোরিজঝিয়া পারমাণবিক কেন্দ্র নিয়ে আলোচনা করার আহ্বান জানিয়েছেন৷ জাখারোভা ইউক্রেনকে প্লান্টের ‘পরিকল্পিতভাবে ক্ষতির জন্য’ অভিযুক্ত করেছেন৷ তিনি ওই প্লান্টে কোনো কিছু ঘটার সম্ভাবনার ইঙ্গিত দিয়েছেন৷ রাশিয়া এবং ইউক্রেন উভয়ই পরস্পরের বিরুদ্ধে পারমাণবিক কেন্দ্রে হামলার ষড়যন্ত্রের অভিযোগ এনেছে৷

সুনাকের সঙ্গে আলোচনা করবেন বাইডেন

মঙ্গলবার লিথুয়ানিয়ায় শুরু হতে যাওয়া ন্যাটো শীর্ষ সম্মেলনের আগে রোববার ইউরোপে সফরে আসছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন৷ তার প্রথম গন্তব্য হবে লন্ডন৷ সোমবার ১০ ডাউনিং স্ট্রিটে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাকের সঙ্গে দেখা করেন তিনি৷ ইউক্রেন নিয়ে আলোচনা করা তার এজেন্ডার অন্যতম অংশ৷ বিশ্লেষকরা পরামর্শ দিয়েছেন যে, শীর্ষ সম্মেলনের আগে কিয়েভের দুই উৎসাহী মিত্রদের ন্যাটোতে যোগদানের দাবিগুলো ব্যক্তিগতভাবে আলোচনা করা দরকার৷

উইন্ডসর ক্যাসেলে তৃতীয় চার্লসের সঙ্গে দেখা করার কথা রয়েছে বাইডেনের৷ তারা পরিবেশ ও জলবায়ু সমস্যা নিয়ে আলোচনা করবেন বলে আশা করা হচ্ছে৷

Leave A Reply

Your email address will not be published.