পত্নীতলায় তিনজনকে পিটিয়ে দুটি মটরসাইকেল ছিনতাই

0 ৯৫

পত্নীতলা ( নওগাঁ ) প্রতিনিধি: পত্নীতলা উপজেলার নজিপুর ইউনিয়নের নাদৌড় সড়কে গাছের সাথে রশি বেধে গতিরোধ করে তিন ব‍্যক্তির দুটি মটরসাইকেল, নগদ টাকা ও মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা।

মঙ্গলবার রাত ১০ টার দিকে ছিনতাইয়ের শিকার হন তারা। এ সময় তাদের বেধম মারধর করছে সন্ত্রাসীরা। ছিনতাইয়ের শিকার নজিপুর ইউপি ৫ নং ওয়ার্ড মেম্বার আব্দুল লতিফ দেওয়ান ও একই গ্রামের জামাই ভবেশ উড়াও।

জানা গেছে, কাজ শেষে মেম্বার লতিফ তার সঙ্গী আইয়ুব ও একই গ্রামের জামাই ভবেশ উড়াও মোটরসাইকেল যোগে বাড়ি ফেরার সময় নাদৌড় রাস্তা এলাকায় পৌঁছামাত্র চার- পাঁচ জন দুর্বৃত্ত রাস্তায় রশি দিয়ে তাদের গতিরোধ করে মাটিতে ফেলে দেয়।  এতে তারা মারাত্মকভাবে আহত হন। এ সময় তাদের মোটরসাইকেল, প্যান্টের পকেটে থাকা মোবাইল ও মানিব্যাগ ছিনিয়ে নেই। পরবর্তীতে গুরুত্বর আহত অবস্থায় ভবেশ উড়াওকে পত্নীতলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

ভবেশ উড়াও এর স্ত্রী জোসনা দৈনিক রাজশাহী প্রতিদিনকে জানান, রাজমিস্ত্রির কাজ শেষ করে আমার স্বামী বাড়ি আসতেছিলো সেই সময় আমার স্বামীকে আটকে রেখে মটরসাইকেল, মোবাইল, টাকা কেড়ে নেয়। আমার স্বামী পালাতে চাইলে তার বাম হাতে ধারালো চাকু দিয়ে কোপ দেই। আমার স্বামীর হাতের অবস্থা এখন খারাপ। আমার স্বামীকে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, এই রাস্তায় প্রতিনিয়ত ছিনতাই, ডাকাতি ও হতাহতের ঘটনা ঘটছে। ডাকাত ও ছিনতাইকারীরা সুযোগমতো রাস্তায় দড়ি, গাছের গুঁড়ি ফেলে কিংবা অন্য কিছু দিয়ে রাস্তায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে গভীর রাত থেকে ভোর রাত পর্যন্ত বিভিন্ন সময়ে পায়ে হেটে যাওয়া লোকজন,  মটর সাইকেল থামিয়ে নিয়মিত ডাকাতি করতো। গত দশ-বারো বছর বন্ধ থাকার পর সম্প্রতি আবারও শুরু হয়েছে।

নজিপুর ইউপি চেয়ারম্যান মিন্টু জানান, ছিনতাইয়ের ঘটনা জানামাত্র আমি সেখানে যায়।  আমার মেম্বার সহ আর একজনকে গাছের সঙ্গে বেধে রেখেছিলো ছিনতাইকারীরা। পরবর্তীতে থানায় ফোন দিলে পুলিশ এসে যাবতীয় আলামত সংগ্রহ করে নিয়ে যায়।

পত্নীতলা থানার ওসি পলাশ চন্দ্র দেব জানান, এই ঘটনায় তৎক্ষণাৎ ঘটনাস্থলে যাই গিয়ে আমরা আলামত সংগ্রহ করি। আমরা তদন্ত করছি। অভিযোগ পেলেই দ্রুত ব‍্যবস্থা গ্রহণ করবো।

Leave A Reply

Your email address will not be published.