পলাশে রানু বেগমের সাজানো স্বপ্ন আগুনে পুড়ে ছাই

0 270
পলাশ (নরসিংদী) প্রতিনিধি: নরসিংদীর পলাশে একটি বসতবাড়িতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। আজ শুক্রবার [৬ মার্চ] রাত ৯টার সময় উপজেলার নতুন পাড়া গ্রামে রুনু বেগমের বাড়িতে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এতে পুড়ে গেছে রানুর দীর্ঘদিনের সাঁজানো স্বপ্ন।
পলাশ ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট প্রায় ১ ঘন্টা চেষ্টায় এ আগুন নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসে। প্রত্যক্ষদর্শী ঘোড়াশাল পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জুলহাস মিয়া ও পলাশ উপজেলা সেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি আনোয়ার আনু জানান, আগুন লাগার খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে ছুটে যাই। প্রথমে আগুন নিয়ন্ত্রণে গ্রামবাসী চেষ্টা চালায়। পরে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘঠনাস্হলে পৌছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।
ক্ষতিগ্রস্ত রুনু বেগমের সাথে কথা বলে জানতে পারি, এ অগ্নিকান্ডে তার স্বর্নালংকার, টিভি ফ্রিজ, ফার্নিচার, নগদ টাকাসহ প্রায় ১২ থেকে ১৩ লক্ষ টাকার মালামাল পুড়ে ছাই হয়েগেছে। সে কথা গিয়ে হাওমাউ করে কাঁদছিলো। বলছিলো অনেক কষ্ট করে খেয়ে নাখেয়ে সে এসব সম্পদ করেছিলো। আমার সখের এসব আজ পুড়ে ছাই।
পলাশ ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার হামিদুল ইসলাম জানান, আগুন লাগার খবর পেয়ে আমরা দ্রুত ঘটনাস্থলে যাওয়ার চেষ্টা করি। কিন্তু গাড়ি চলাচলের রাস্তা পুরোপুরি  উপযোগী না থাকায় ঘটনাস্থলে পৌছতে কিছুটা সময় লেগেছে। পরে সেখানে পৌছে প্রায় ১ ঘন্টা চেষ্টায় আমরা আগুন নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসি।
ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা আরো বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি বৈদ্যুতিক মিটারে শর্ট সার্কিটের কারণে এ আগুনের সূত্রপাত হয়। এতে বাড়িটির ৮টি রুম পুড়ে যায়। তবে তিনি তাৎক্ষণিক ক্ষয় ক্ষতির পরিমান জানাতে পারেনি।
এদিকে শনিবার ৭ মার্চ সকালে ঘোড়াশাল পৌর মেয়র আলহাজ্ব শরীফুল হক ও পলাশ উপজেলা চেয়ারম্যান সৈয়দ জাবেদ অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত রানু বেগমের বাড়ি দেখতে যান। এসময় তাকে সান্তনা দিয়ে পৌর মেয়র ক্ষতি পুষিয়ে নিতে রানু বেগমকে সাহায্যের আশ্বাস দেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

x