পাইকগাছায় ছোট ভায়ের উপর অভিমান করে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা

0 116

পাইকগাছা(খুলনা) প্রতিনিধি: পাইকগাছার কড়ুলিয়ায় ছোট ভাই মোবাইল সেরে রাখার দ্বন্দ্বে অভিমানে নিপা মন্ডল (১৩) নামে এক স্কুল ছাত্রী গলায় ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১০ টার দিকে বাড়ীতে কেউ না থাকার সুযোগে নিপা ঘরের আড়ায় ওড়না দিয়ে আত্মহত্যা করেন বলে পারিবারিক সুত্র জানায়। খবর পেয়ে ওসি মোঃ এজাজ শফী ও লস্কর ইউপি চেয়াম্যান কেএম আরিফুজ্জামান তুহিন উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে পৌছে খবরা-খবর নেন।

 

ঘটনার সময় নিহত স্কল ছাত্রীর মা অন্যের চিংড়ি ঘেরে কাজ করতে গিয়েছিল। আর বাবা কিরন মন্ডল দিনমজুর হিসেবে ধান কাঁটতে বর্তমানে গোপালগঞ্জ অবস্থান করছেন। পুলিশ মৃত্যের সুরোতহাল রিপোর্ট শেষে ময়নাতদন্তের জন্য খুমেক হাসপাতালে প্রেরন করেছে।

 

নিহত স্কুল ছাত্রীর পারিবার ও স্থানীয় সুত্র জানিয়েছেন, মঙ্গলবার সকালে কিরন মন্ডলের স্ত্রী চিংড়ি ঘেরে দিনমজুর হিসেবে কাজ করতে গেলে এ দম্পতির একমাত্র শিশু পুত্র শিব তার ছোট বোন নিপার মোবাইল সেরে রাখে।

 

এর জের ধরে নিপাও ভাই শিবের সাইকেলের চাকার হাওয়া সরিয়ে দেয়। এ নিয়ে দু’ভাই বোনের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি হয়। ক্ষোভের এক পর্যায়ে সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে বাড়ীতে কেউ না থাকার সুযোগ নিয়ে নিপা বসত ঘরের আড়ায় ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করে।

 

নিপা পৌরসভার টাউন স্কুলের ৭ম শ্রেনীর ছাত্রী। ওসি মোঃ এজাজ শফী বলেন, নিহত স্কুল ছাত্রীর লাশের সুরোতহাল রিপোর্ট শেষে ময়না তদন্তের জন্য খুমেক হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.

x