পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত সাজিদ বৃটেনের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

0 350

আন্তর্জাতিক অনলাইন ডেস্ক : ‘উইন্ডরাশ জেনারেশন’ বিতর্কে সমালোচনার মুখে ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আম্বার রাডের পদত্যাগ পর নতুন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নিয়োগ দিয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টেরেজা মে। সোমবার (৩০ এপ্রিল) পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত বৃটিশ নাগরিক সাজিদ জাভিদকে এ পদে নিয়োগ দিয়েছেন তিনি।

অবৈধ অভিবাসীদের বৈধতার বিষয়ে সরকারি কমিটিকে ‘অসাবধানতা বশত বিভ্রান্ত’ করার অভিযোগ উঠেছিল রাডের বিরুদ্ধে। আর এবার নিয়োগ দেয়া হলো একজন অভিবাসীর সন্তানকে। ৪৮ বছরের জাভিদের বাবা একজন পাকিস্তানি অভিবাসী।

বিবিসিসহ আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম এখবর দিয়েছে।

১৯৬০-এর দশকে পাকিস্তান থেকে বৃটেনে পাড়ি জমান জাভিদের বাবা। প্রথমে কাপড়ের কারখানায় শ্রমিক হন। পরে বাস চালাতেন। প্রথম প্রজন্মের অভিবাসীর সন্তান হয়ে জাভিদের অন্যতম প্রধান দায়িত্ব হবে অভিবাসন নিয়ে বৃটেনের জনগণের উদ্বেগ সামলানো।

১৯৬০ ও ৭০ এর দশকে কোনো প্রকার কাগজপত্র ছাড়াই যুক্তরাজ্যে আসতেন অভিবাসীরা। বিশেষ করে কমনওয়েলথভুক্ত দেশগুলো থেকে কাজের জন্য এসব অভিবাসীকে আনা হতো। উইন্ডরাশ নামে একটি জাহাজে করে কয়েক হাজার অভিবাসী এসেছিলেন ক্যারিবিয়ান দ্বীপ থেকে।

ওই সময়ে আসা অভিবাসীদের অনেককেই ব্রিটিশ পাসপোর্ট বা ব্রিটেনে থাকার বৈধ কাগজপত্র কখনো নেননি। তারা বৈধভাবে বসবাস করে আসছিলেন এবং সরকারী সব সরকম সুযোগ-সুবিধাও ভোগ করছিলেন।

২০১৩ সালে কনজারভেটিভ সরকার বাড়ি ভাড়া নেয়া, ব্যাংক একাউন্ট খোলা এবং এনএইচএস-এর সেবা গ্রহণের ক্ষেত্রে ইমিগ্রেশন স্ট্যাটাস যাচাইয়ের শর্ত জুড়ে দেয়ার কারণে ওই অভিবাসীরা বিপাকে পড়েন। তারা কার্যত কোনো কিছুই করতে পারছিলেন না।

ব্রেকিংনিউজ/

Leave A Reply

Your email address will not be published.

x