পাবনার চাটমোহরে ইটভাটায় চলে যাচ্ছে ফসলি জমির উর্বর মাটি

0 138

চাটমোহর (পাবনা) প্রতিনিধি: পাবনার চাটমোহরের বিভিন্ন ইটভাটায় চলে যাচ্ছে ফসলি জমির উর্বর মাটি আর জমি হয়ে যাচ্ছে ফসলের অনুপযুক্ত। সরকারি ভাবে ‘জমির প্রকৃতি পরিবর্তন করা যাবে না’-এমন নির্দেশ থাকলেও পাবনার চাটমোহর উপজেলায় তিন ফসলি কৃষি জমিগুলোর উর্বর মাটি ইটভাটায় দিয়ে পরিণত করা হচ্ছে গভীর পুকুরে। এতে উপজেলায় আশঙ্কাজনক হারে কমছে কৃষি জমির পরিমাণ।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

 

জানা গেছে, এ উপজেলায় তিন ফসলি জমিতে পুকুর খনন করে সেই মাটি বিভিন্ন ইটভাটায় সরবারহ করা হচ্ছে। কৃষকরা না বুঝে হারাচ্ছেন তাদের উর্বর ফসলি জমি। এলাকার অনেক জমিতে মাটি কেটে জমির চারপাশ বেঁধে পুকুরে রুপান্তরিত করা হচ্ছে আর অবশিষ্ট মাটি ইটভাটায় বিক্রি করা হচ্ছে। উপজেলার প্রত্যন্ত এলাকায় ফসলি জমি কেটে অবাধে পুকুর কাটা হচ্ছে।

 

এসকল ফসলি জমির মাটি যাচ্ছে উপজেলায় অবৈধভাবে গড়ে ওঠা ইটভাটাগুলোতে। প্রতিনিয়ত ফসলি জমি কেটে পুকুর খনন করায় একদিকে যেমন মাঠের সৈৗন্দর্য হারচ্ছে তেমনি পাশের জমিগুলোতে সৃষ্টি হবে জলাবদ্ধতা এমন ধারনা স্থানীয়দের। চাটমোহর উপজেলায় ১০টি ইটভাটার অনেকগুলোর কোন প্রকার লাইসেন্স বা পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র নেই।

 

তারা ইচ্ছেমতো ইটভাটা চালাচ্ছে। পোড়ানো হচ্ছে কাঠ। কোন কিছুরই তোয়াক্কা এরা করছেন না। এসকল ইটভাটায় ইটের মাপও কম। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোঃ সৈকত ইসলাম জানান, আবাদি জমি থেকে অভৈধভাবে মাটি কর্তনের অভিযোগ পেলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.

x