পুঠিয়ায় নিরাময় ক্লিনিকে ভূল চিকিৎসায় প্রসুতি মায়ের মৃত্যুর অভিযোগ

0 ৪৩৫

পুঠিয়া (রাজশাহী) প্রতিনিধি: রাজশাহীর পুঠিয়ায় নিরাময় ক্লিনিকে ভূল চিকিৎসায় প্রসুতি মায়ের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার এই ঘটনা ঘটে। তবে গোপন চুক্তির মাধ্যমে ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

জানা গেছে, রাজশাহী জেলার পুঠিয়া উপজেলার বারইপাড়া গ্রামের মিঠুর স্ত্রী শাবানা বেগমের সন্তান প্রসবের জন্য বৃহস্পতিবার পুঠিয়া উপজেলা সদরে অবস্থিত নিরাময় ক্লিনিকে ভর্তি করেন। সেখানে রাতে ডাক্তার শাহাদত হোসেন এবং অজ্ঞান ডাক্তার শাকি মিলে সিজারিয়ান অপারেশন করেন।

সে সময় ছেলে সন্তান হয়। তবে ছেলে সন্তানটি বেচে থাকলেও মায়ের অবস্থার অবনতি হওয়ায় কৌশলে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। এরপর রোগীটি মারা যায়। শুক্রবার শাবানার পিতা বয়েন উদ্দিনের বাড়ি পুঠিয়া উপজেলার সৈয়দপুর গ্রামে দুপুর আড়াইটার দিকে তার দাফনের কাজ সম্পন্ন করে।

অজ্ঞান ডাক্তার শাকি জানান, আমি সেই অপারেশনে ছিলাম, রেগীর শ্বাস কষ্ট ছিলো। সে সময় তার অবস্থা খারাপ হওয়ায় আমরা রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতলে নেওয়ার জন্য বলি। তারা রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়।

এ ব্যাপারে নিরাময় ক্লিনিকের মালিক ডাঃ শাহাদত হোসেন জানান, আমি শাবানার সিজার অপারেশন করেছি। কিন্তু তার অন্য সমস্য থাকার কারণে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করি। তারপর তিনি মারা যায়।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোঃ আলী মাজরুই রহমান জানান, নিরাময় ক্লিনিকের অনুমোদন আছে কি না সঠিক বলতে পারছিনা। ফাইল দেখে বলতে পারবো। আমার কছে কেউ অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ এলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.