পুঠিয়ায় স্কুল ছাত্রীকে র্স্পশকাতর জায়গায় হাত দেওয়া ও উক্তত্য করার অভিযোগে শিক্ষক গ্রেফতার

0 ৭১

পুঠিয়া (রাজশাহী) প্রতিনিধিঃ রাজশাহীর পুঠিয়ার বেলপুকুরের ধাধাশ উচ্চ বিদ্যালয়ে স্কুল ছাত্রীকে র্স্পশকাতর জায়গায় হাত দেওয়া ও উক্তত্য করার অভিযোগে শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার সন্ধায় বেলপুকুর থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে।

বেলপুকুর থানার অফিসার ইনচার্জ এস এম মাসুদ পারভেজ জানান, রাজশাহী জেলার পুঠিয়া উপজেলার বেলপুকুর থানার ধাধাশ উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্রী (১৫) কে র্স্পশকাতর জায়গায় হাত দেওয়ার অভিযোগে সেই ছাত্রীর ভাই বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন।

অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন, একই জেলার চারঘাট উপজেলার মাড়িয়া গ্রামের নওশাদ আলীর পুত্র ধাধাশ উচ্চ বিদ্যালয়ের ইংরেজীর শিক্ষক সারোয়ার হোসেন মানিক বাদীর বোনকে মোবাইল ফোন কিনে দেওয়া সহ মোবাইল ফোনে উক্তত্য করে আসছিলো। সোমবার দুপুর টিফিনে স্কুলের একটি রুমে সেই ছাত্রীকে ডেকে র্স্পশকাতর জায়গায় হাত দেওয়া সহ অনৈতিক কাজ করার চেষ্টা করে।

এ সময় স্থানীয়রা এসে পড়লে সেখানে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। এ সময় থানা পুলিশকে খবর দিলে ঘটস্থলে গিয়ে সেই শিক্ষককে থানায় নিয়ে আসে। এ ঘটনায় স্কুল ছাত্রীর ভাই বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন। মঙ্গলবার সকালে আসামীকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, সেই শিক্ষক দুইটি বিয়ে করেছে। প্রথম স্ত্রীকে ছেড়ে দিয়েছে। আর দ্বিতীয় স্ত্রীর সাথে সংসার করছে। তার দুইটি সন্তানও রয়েছে।

ধাধাশ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল মান্নান জানান, ছাত্রী আমাদের কাছে অভিযোগ দিয়েছিলো। সেটা নিয়ে আমারা স্কুলে বসেছিলাম। পরবর্তীতে মামলা হয়েছে। পুলিশ তাকে আটক করেছে।

এ ব্যাপারে পুঠিয়া উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার লায়লা আখতার জাহান জানান, বিষয়টি আমার জানানাই। সেই স্কুল থেকে আমাদের কিছু জানানো হয়নি। তবে অভিযোগ আসলে আমরা দপ্তরিক ব্যবস্থা নেব।

Leave A Reply

Your email address will not be published.