পুঠিয়া ইউপি নির্বাচনে প্রতিক বরাদ্দের পূর্বেই প্রতিক দিয়ে পোষ্টার বানিয়ে ফেসবুকে প্রচারণার অভিযোগ

0 ৩৬

পুঠিয়া  প্রতিনিধি: রাজশাহীর পুঠিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে একজন চেয়ারম্যান প্রার্থীর প্রতিক বরাদ্দের পূর্বেই আনারস প্রতিক দিয়ে পোষ্টার বানিয়ে ফেসবুকে প্রচার-প্রচারণার অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার চেয়ারম্যান প্রার্থী আশরাফ খাঁন ঝন্টু বাদী হয়ে বিভাগীয় কমিশনার, রাজশাহী জেলা প্রশাসক, জেলা নির্বাচন অফিসার, পুঠিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও পুঠিয়া উপজেলা নির্বাচন অফিসার দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দাখিল করেন।

লিখিত অভিযোগ পত্র সূত্রে জানা গেছে, রাজশাহী জেলার পুঠিয়া উপজেলার পুঠিয়া ইউনিয় পরিষদের প্রার্থী খ.ম জাহাঙ্গীর আলম জুয়েল গত ৩ এপ্রিল ২০২৪ ইং তারিখে তার ফেসবুক আইডি এবং তার কর্মী ইমরান আহমেদ, মিম হোসেন, মৃদুল মাহমুদ জয়, আহসান এবং সামিউল ইসলাম সহ কর্মী সমর্থক সামাজিক যোগযোগ মাধ্যম ফেসবুকে আনারস মার্কা দিয়ে সাদাকালো পোষ্টার পোস্ট করে প্রচার প্রচারণা করছে। যা নির্বাচন বিধিমালা এস, আর, ও নং ৩০ আইন/২০১৬ এর ৫ ধারার সুনিদিষ্ট লঙ্ঘন করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে খ.ম জাহাঙ্গীর আলম জুয়েল জানান, কে বা কাহারা এই পোষ্ট করেছে। তবে আমি তাদেরকে সরিয়ে নেওয়ার জন্য বলেছি।

আশরাফ খাঁন ঝন্টু জানান, তফশিল ঘোষনার পর থেকে আমার নেতা-কর্মীদের বিভিন্ন ভাবে ভয়ভীতি হুমকি প্রদান করছে। আমার ভোট না করলে পুলিশ দিয়ে গ্রেফতার করাবো। আর আমি মন্ত্রীর মনোনীত প্রার্থী আমাকে যে ভোট দিবে সে ভোট কেন্দ্রে যেতে পারবে আর না হলে ভোট কেন্দ্রে যেতে পারবে না। আমি এক ভোট পেলেও পাস বলে প্রচার করছে বলে জানতে পেরেছি। তাই বিষয়টি প্রশাসনের তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানাচ্ছি।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাচন অফিসার সুম্মিতা রায় জানান, আমরা অভিযোগ পেয়ে সেই প্রার্থীকে সর্তক করেছি। তিনি সেগুলো প্রত্যাহার করে নিবে বলে জানিয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার এ কে এম নূর হোসেন নির্ঝর জানান, অভিযোগ পেয়েছি। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাচন অফিসার তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.