পুঠিয়ার বেলপুকুর বিজিবি চেক পোষ্ট দিয়ে কাগজপত্র বিহীন গরু-মহিষ পারাপার

0 746

Rajshahiপুঠিয়া (রাজশাহী) প্রতিনিধি : আসন্ন ঈদকে সামনে রেখে রাজশাহীর পুঠিয়ার বেলপুকুর বিজিবি চেক পোষ্ট দিয়ে ভারতীয় কাগজপত্র বিহীন গরু-মহিষ গোপন চুক্তির মাধ্যমে নিবিগ্নে পারাপার হচ্ছে। এতে সরকার বিপুল পরিমাণ রাজস্ব আয় থেকে বঞ্চিত হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
জানা গেছে, রাজশাহী জেলার পুঠিয়া উপজেলার বেলপুকুর বিজিবির ৩৭ ব্যাটেলিয়নের একটি ক্যাম্প অবস্থিত। রাজশাহী ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা ভারতীয় সীমান্তবর্তী হওয়ায় ভারত থেকে গরু-মহিষ চোরাকারবারী সিন্ডিকেট পারাপার করে সরকারী করিডোর ফাঁকি দিয়ে ভিন্ন ভিন্ন পথে ট্রাক, নসিমন ও করিমন যোগে বিভিন্ন স্থানের চেয়ারম্যানের গুরু মোতাতাজা করনের সনদপত্র দিয়ে বিজিবি চেক পোষ্টের কর্মরত লেন্স নায়েক ও ওয়ালেস অপারেটর (সিগনাল) এই দুই জনের সাথে গোপন চুক্তির মাধ্যমে পারাপার হয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে চলে যাচ্ছে।
বেলপুকুর চেক পোষ্টে গিয়ে জানা গেছে, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও রাজশাহীর বিভিন্ন হাট ও সীমান্ত দিয়ে চোরাই পথে আসা গরু-মহিষ ট্রাক, নসিমন ও করিমন যোগে আসা বেলপুকুর চেক পোষ্টে আসা মাত্রই গাড়ীতে থাকা ব্যবাসায়ী গাড়ী থেকে নেমে কাগজ দেখানোর জন্য চেক পোষ্টে যায়। কিন্তু বিজিবি সদস্যরা গাড়ীতে কয়টি গরু-মহিষ যাচ্ছে তা তল্লাসী না করেই ছেড়ে দেয় বলে অভিযোগ রয়েছে।
এলাকাবাসী আরো জানান, ইতি মধ্যে গরু-মহিষ ব্যবসায়ী একজন টাকা দেওয়ার সময় সিসি ক্যামেরার সামনে পাড়ায় বিজিবি সদস্য বাঁচার জন্য সেই ব্যবাসায়ীকে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট নিয়ে গিয়ে ভ্রাম্যমান আদালত এর মাধ্যমে জরিমানা করে।
সূত্র জানান, গরু-মহিষ চোরাকারবারী সিন্ডিকেট রাজশাহীর এক টিম বেলপুকুর বিজিবি চেক পোষ্টের সাথে চুক্তির মাধ্যমে প্রতিটি গাড়ীর কাগজের পিছনে মেট্রো ও লেলকি চিহ্ন দিয়ে অবৈধ্য ভারতীয় গরু-মহিষ পারাপার করে। প্রতিটি গাড়ির কাগজে মেট্রো চিহ্ন হলে ১২ শত ও লেলকি চিহ্ন দেওয়া হলে ৭ শত টাকা চুক্তি মোতাবেক বেলপুকুর বিজিবির চেক পোষ্টের কর্মরত লেন্স নায়েক অথবা ওয়ালেস অপারেটর (সিগনাল) এর হাতে দিয়ে যায় বলে একটি সূত্র জানিয়েছে।
রাজশাহী থেকে ছেড়ে আসা গরুবাহী কয়েক জন ট্রাক, নসিমন ও করিমন যোগে ব্যবাসয়ীরা জানান, আমারা গরু-মহিষ নিয়ে যায়। আমাদের একটি সিন্ডিকেট আছে তাদের মাধ্যমে চুক্তি মোতাবেক গরু-মহিষ নিয়ে যায়।
এ ব্যাপারে বেলপুকুর বিজিবি চেক পোষ্টের ইনচার্জ হাবিলদার আব্দুর রহিম জানান, আমরা এখানে আসা ১৩ দিন হল। এখানে আসার পর থেকে কোন মামলা দেওয়া হয়নি। তবে অনেক গরু-মহিষের করিডোর করিয়েছি। আর গরু-মহিষ যে ভাবে যাওয়ার আমার মতে বর্তমানে সেই ভাবেই যাচ্ছে বলে জানান।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

x