প্রশংসায় ভাসছেন বেনজেমা

৩১৬
রিয়াল মাদ্রিদ তারকা করিম বেনজেমা। ছবি : সংগৃহীত

রিয়াল মাদ্রিদ ও পিএসজির ম্যাচের আগে চোখ বন্ধ করে অনেকেই ফেভারিট হিসেবে ধরে নিয়েছিল প্যারিসের ক্লাবটিকে। একে তো তারা প্রথম লেগ জিতে এগিয়ে ছিল, দ্বিতীয়ত তাদের দল তারকায় ভরপুর। কিন্তু সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে সব হিসেবে পাল্টে দিয়েছেন করিম বেনজেমা। তারকা ফুটবলারদের ছাপিয়ে পুরো ম্যাচের নায়ক বনে গেলেন তিনি। হ্যাটট্রিক করে রিয়াল মাদ্রিদকে চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে তুললেন এই ফরাসি স্ট্রাইকার।

লিওনেল মেসি, কিলিয়ান এমবাপ্পে ও নেইমারদের বিদায় করে দেওয়া করিম বেনজেমা ম্যাচ জয়ের পর ভাসছেন প্রশংসার জোয়ারে। রিয়াল কোচ কার্লো আনচেলত্তির চোখে তিনি অসাধারণ নেতা হয়ে উঠেছেন।

বেনজেমার হ্যাটট্রিকে চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোর ফিরতি লেগে ৩-১ ব্যবধানে জিতেছে রিয়াল মাদ্রিদ। এর আগে প্রথম লেগে নিজেদের মাঠে ১-০ ব্যবধানে জিতেছিল পিএসজি। দুই লেগ মিলিয়ে ৩-২ অগ্রগামিতায় চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে উঠল কার্লো আনচেলত্তির দল।

বেইন স্পোর্টসের প্রতিবেদন অনুসারে ম্যাচ শেষে বেনজেমাকে প্রশংসা করে কোচ আনচেলত্তি বলেন, ‘সে একজন অসাধারণ নেতা। অসাধারণ সেন্টার ফরোয়ার্ড। সে যা করেছে, আমি খুব খুশি। তার মনোভাবেও আমি খুশি।’

এরপর রিয়াল কোচ বলেন, ‘প্রথম গোলের পর আমরা আরো দ্রুতগতিতে খেলেছি। ভালোভাবে চাপ দিতে পেরেছি ও বল নিয়ন্ত্রণ করেছি। দ্বিতীয়ার্ধে কম কঠিন পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হয়েছে প্রথমার্ধের তুলনায়।’

ম্যাচের প্রথমার্ধটা ছিল পিএসজির পক্ষেই। প্রথম লেগে গোল করা এমবাপ্পে দ্বিতীয় লেগেও পিএসজিকে লিড এনে দেন। তাতে ভয় জেগেছিল রিয়াল শিবিরে। বিরিতিতে গিয়ে কোচের কথাতেই তাতিয়ে উঠছিলেন ফুটবলাররা।

আনচেলত্তি বলেন, ‘বিরতির সময়, নিজেদের মধ্যে আমরা বলেছি আমাদের ম্যাচে থাকতে হবে। এমনকি কঠিন সময়েও ভেবেছি কিছু হতে পারে। পিএসজি দারুণ ফুটবলারদের দুর্দান্ত দল। কিন্তু এটাই ফুটবল। সব ছোট জিনিসই সবকিছু বদলে দিতে পারে প্রথম গোলটার মতো করে।’

Comments are closed.