প্রাথমিক পর্যায়ে প্রতিটি জেলায় এই বিশ্রামাগার প্রতিষ্ঠা করছে – বিচারপতি রুহুল কুদ্দুস

0 ৫৮

নাটোর প্রতিনিধি: বিচারপতি মোঃ রুহুল কুদ্দুস বলেছেন, “বিচারপ্রার্থী জনগণ বিচার পেতে এসে যাতে সন্মানের সাথে একটি বসার যায়গা পায় তার ব্যবস্থা থাকা দরকার। সেই উপলদ্ধি থেকেই প্রধান বিচারপতি এই উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। রাষ্ট্র তথা সরকার একটি দৃষ্টান্ত স্থাপনের জন্য এই উদ্যোগে সাড়া দিয়ে প্রাথমিক পর্যায়ে প্রতিটি জেলায় এই বিশ্রামাগার প্রতিষ্ঠা করছে।

রাষ্ট্র এই কাজগুলো করছে ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে। এই ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠায় বিচার বিভাগ যেমন কাজ করে থাকেন তেমনি বার, অ্যাসোসিয়েশন এবং বারের বিজ্ঞ সদস্যরা এই বিচার কাজে সহায়তা করে থাকেন। সব মামলায় আইনজীবী যে জয়লাভ করতে পারবেণ এমনটি কিন্তু নয়।

কোর্ট বা বিচারক যাতে সঠিক সিদ্ধান্তে উপনিত হতে পারেন সেজন্য সাহায্য করাই আইনজীবীদের কাজ। সেজন্য তারা মক্কেলের কাছ থেকে তথ্যাদি গ্রহণ করে তাকে সেইভাবেই তাকে পরামর্শ প্রদান করবেন। এভাবেই ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা হবে।” বিচারপতি শনিবার নাটোর জেলা ও দায়রা জজ আদালত প্রাঙ্গণে আগত বিচারপ্রার্থীদের দুর্ভোগ লাঘবে গণপূর্র্ত বিভাগের বাস্তবায়নে প্রায় ৫২ লাখ টাকা ব্যয়ে ন্যায়কুঞ্জ নামে বিশ্রামাগারের ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপনকালে এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে নাটোরের সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ মোঃ শরীফ উদ্দীন, জেলা প্রশাসক আবু নাছের ভূঁঞা, যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মোঃ শামসুল আল-আমীন, চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচারক মোঃ রওশন আলম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ শরিফুল ইসলাম, জজ কোর্টের বিজ্ঞ পিপি অ্যাডভোকেট মোঃ সিরাজুল ইসলাম, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট আবু আহসান টগর, সাধারণ স¤পাদক অ্যাডভোকেট এম মালেক শেখ সহ বিচার বিভাগ, জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। পরে বিচারপতি মোঃ রুহুল কুদ্দুস আদালত চত্বরে একটি গাছের চারা রোপন করেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.