ফের হাস্যকর রিভিউ নিয়ে আলোচনায় বাংলাদেশ

0 ২৩৫
বাংলাদেশ বনাম ইংল্যান্ড ম্যাচ। ছবি : বিসিবি

রিভিউ নিয়ে সিদ্ধান্তহীনতা বাংলাদেশের জন্য নতুন কিছু নয়। নানা সময় হাস্যকর সব রিভিউ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ট্রলের শিকার হয়েছেন এদেশের ক্রিকেটারা। আজ ইংল্যান্ডের বিপক্ষে আবারও হাস্যকর রিভিউ নিয়ে নেটিজেনদের সমালোচনার তোপে পড়লেন তারা।

আজ শুক্রবার (৩ মার্চ) মিরপুর শেরেবাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ৪৮তম ওভারের শেষ বলে তাসকিনের এলবিডব্লিউয়ের আবেদনে আম্পায়ার সাড়া না দেওয়ায় রিভিউ নেন অধিনায়ক তামিম ইকবাল। তবে, পরে রিপ্লেতে যা দেখা গেল, তা রীতিমত হাস্যকর।

তাসকিনের ফুল লেংথের বলটি আদিল রশিদ স্পষ্ট ব্যাটে খেললেও বাংলাদেশের খেলোয়াড়েরা আবেদন করেন। স্বাভাবিকভাবেই এলবিডব্লুর আবেদনে আম্পায়ার সাড়া দেননি। কিন্তু বল আদিল রশিদের পায়ের পাতায় লাগতে পারে ভেবে বাংলাদেশের খেলোয়াড়েরা রিভিউ নিতে মরিয়া হয়ে ওঠেন।

তামিম রিভিউ নেওয়ার পর ভিডিও রিপ্লেতে দেখা যায়, বলটা সরাসরি ব্যাটেই খেলেছেন রশিদ। এমন রিভিউ দেখে হতবাক নেটিজেনরা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে এই হাস্যকর মুহূর্তটির বেশকিছু ছবি। অবশ্য বাংলাদেশের এমন হাস্যকর রিভিউ নেওয়ার রীতিটা বেশ পুরনো।

২০২২ সালে নিউজিল্যান্ড সফরে আলোচিত মাউন্ট মঙ্গাইনুই টেস্টে ইবাদতের বলে রস টেইলরের বিরুদ্ধে নেওয়া বাংলাদেশের একটি রিভিউ স্বীকৃতি পেয়েছিল ইতিহাসের সব থেকে হাস্যকর রিভিউ হিসেবে।

হাস্যকর আরও আগেও হয়েছে, ভারত সফরে বিরাট কোহলির একটা ডিফেন্সকে চ্যালেঞ্জ করে বসেন মুশফিক। এই ঘটনায় হাসতে থাকেন বিরাট। ফলাফলটা সবারই জানা।

একই চিত্র ঘরের মাটিতে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধেও। শরিফুলের লেগ স্ট্যাম্পের বাইরে পিচ করা বলটি আম্পায়ার আউট না দিলেও রিভিউ চান ক্যাপ্টেন। ফলাফল নট আউট। ২০২১ সাল পর্যন্ত এক হিসেব বলছে, রিভিউ সফল হওয়াতে সব থেকে পিছিয়ে থাকা দলটার নাম বাংলাদেশ। ২০২১ পর্যন্ত ৭৮ রিভিউতে টাইগাররা ব্যর্থ হয়েছে ৬০ বার।

বাংলাদেশের রিভিউ ব্যার্থতার দায়গুলো বরাবরই যায় অধিনায়কের দিকে। তবে, এক্ষেত্রে উইকেটকিপারের ভূমিকা অনেক সময় পড়ে যায় আড়ালে। অধিনায়ক বরাবরই আগলে রাখেন সতীর্থদের। কিন্তু, এভাবে আর কতদিন? কবে সঠিক রিভিউ নেওয়া শিখবে বাংলাদেশ—এমনটা প্রশ্ন ক্রিকেটপ্রেমীদের।

Leave A Reply

Your email address will not be published.