বঙ্গবন্ধু বাঙালি জাতিকে জাগিয়ে তুলেছিলেন- বিভাগীয় কমিশনার

0 ১৬০

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার জি এস এম জাফরউল্লাহ্, এনডিসি বলেছেন,জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ঘুমন্ত বাঙালি জাতিকে জাগিয়ে তুলেছিলেন। বঙ্গবন্ধু দেখিয়ে দিয়েছিলেনকীভাবে একটি জাতিকে সচেতন করতে হয়, নিজের অধিকার আদায় করতে হয়।

শুক্রবার (১৭ মার্চ) সকালে জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০৩তম জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষ্যে অনুষ্ঠিত ‘বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনের অঙ্গীকার, সকল শিশুর সমান অধিকার’ শীর্ষক আলোচনাসভা, পুরস্কার বিতরণী ওসাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

বঙ্গবন্ধুর জীবনের বিভিন্ন ঘটনা তুলে ধরেবিভাগীয় কমিশনারবলেন, টুঙ্গীপাড়ার অজপাড়া গাঁয়ে যদি এ খোকা না জন্মাত তবে আমরা জানতাম না স্বাধীনতা কাকে বলে। তাঁর মাত্র ৫৫ বছর জীবনের প্রায় ১৩ বছরই কেটেছে কারাগারে। বাঙালির জন্য কত আত্মত্যাগ করেছেন তিনি। তাঁর একটাই লক্ষ্য ছিল বাঙালি জাতি যেন মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পারে।

জি এস এম জাফরউল্লাহ্ বলেন, বঙ্গবন্ধুর ইতিহাস সারাবিশ^ জানে। তিনি ৭ মার্চের ভাষণের মাধ্যমেসাড়ে ৭ কোটি মানুষকে অধিকার আদায়ের সংগ্রামে উজ্জ্বীবিত করতে পেরেছিলেন।তিনি বলেছিলেন সাড়ে সাত কোটি বাঙালিকে দাবায়ে রাখতে পারবা না।একজন স্মার্ট মানুষের মধ্যে যে যে গুণ থাকতে হয়, তাঁর সবই ছিল বঙ্গবন্ধুর মধ্যে।

বঙ্গবন্ধুর আদর্শ অনুকরণ ও অনুসরণ করে আমাদের ভবিষ্যত প্রজন্মকে গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশএগিয়ে যাচ্ছে। আমরা সবাই বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে তাঁরই সুযোগ্য কন্যার নেতৃত্বে দেশ গড়ার কাজে লেগে পড়েছি। একটু দেরিতে হলেও বঙ্গবন্ধু যে সোনার বাংলার স্বপ্ন দেখেছিলেন আমরা তা বিনির্মাণ করব। ২০৪১ সালের মধ্যে আমরা উন্নত দেশে পরিণত হব।

সভায় রাজশাহী অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ড. তসিকুল ইসলাম রানা আলোচক হিসেবে বক্তৃতা করেন।

জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিলের সভাপতিত্বে সভায় রাজশাহী রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি মোঃ রশিদুল হাসান, আরএমপি’র অতিরিক্ত কমিশনার মোঃ ফারুক হোসেন, পুলিশ সুপার এ বি এম মাসুদ হোসেন বক্তব্য রাখেন।

আলোচনাসভার শুরুতে শিশুদের সঙ্গে অতিথিদের নিয়ে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনের কেক কাটেন বিভাগীয় কমিশনার। সভা শেষে বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণী ও সাংস্কৃতিক পরিবেশনা অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে সকালে মহানগরীর বঙ্গবন্ধু চত্বরে জাতির পিতার ম্যুরালে পুস্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানানো হয়।

Leave A Reply

Your email address will not be published.