বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের মাসিক সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত

0 ৯৩

প্রেস বিজ্ঞপ্তি: বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (বিএমডিএ) মে ২০২৩ মাসের মাসিক সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (৫জুন) বেলা ১১টায় বিএমডিএ’র সদর দপ্তরের সম্মেলন কক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের নির্বাহী পরিচালক মোঃ আব্দুর রশীদ এর উপস্থিতিতে বরেন্দ্র কর্তৃপক্ষের কর্মকর্তা/কর্মচারীদের সুস্থ্যতা কামনা করে পবিত্র কোরআন তেলায়াত শেষে দোয়ার মাধ্যমে মুল সভা শুরু হয়।

উক্ত সভায় বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের মাননীয় চেয়ারম্যান বেগম আখতার জাহান সভাপতিত্ব করেন।
সভায় স্বাগত বক্তব্যে শুরুতে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন স্বাধীন বাংলাদেশের মহান স্থাপতি, বাঙালি জাতি-স্বত্তার রূপকার, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। স্মরণ করেন ৩ নভেম্বর জেলের অভ্যান্তরে নির্মমভাবে নিহত জাতীয় চার নেতাকে। এ ছাড়াও ৩০লক্ষ বীর শহীদ যাঁদের আত্ম ত্যাগের বিনিময়ে আমরা স্বাধীন মানচিত্র পেয়েছি, প্রত্যেকের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করে তাঁদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন।

তিনি বলেন, জাতীর পিতা ছিলেন ইতিহাসের সর্বশ্রেষ্ঠ মহানায়ক। তিনি তাঁর জীবনের প্রজ্জ্বলিত আলো দিয়ে বাঙালী জাতীর জীবনে আলো জ্বালিয়েছেন। সেই আলোতে আলোকিত হয়েই জাতীর পিতার সুযোগ্য কন্যা গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, উন্নয়নের কান্ডারী, আধুনিক বাংলাদেশ বিনির্মাণের সফল কারিগর, দূরদর্শী রাষ্ট্রনায়ক, দেশরতœ, জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্ভিক, তেজস্বী ও দূরদর্শী নেতৃত্ব এবং সঠিক দিক নির্দেশনায় বাংলাদেশের সার্বিক উন্নয়নকে আমরা কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করে চলেছি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সফল রাষ্ট্র নায়োকোচিত সিদ্ধান্ত ও সঠিক দেশ পরিচালনার মধ্যে দিয়ে বাংলাদেশ আজ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হয়েছে, দেশ এখন উন্নয়নের মহাসড়কে।

তিনি যেমন কৃষি বিপ্লবের রূপকার, তেমনি ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার দক্ষ কারিগর। তিনি স্মার্ট বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা। উন্নত দেশের কাতারে সামিল হওয়ার অভিপ্রায়ে তিনি ভিষন ২০৪১ কে সামনে রেখে দূর্বার গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। আমার এ সময়ে কর্তৃপক্ষে সর্বাধিক ১০টি প্রকল্পের কাজ চলমান রয়েছে। বরেন্দ্রের ইতিহাসে আগে কখনও এতগুলো প্রকল্পের কাজ একসাথে চলেনি। এটি একটি ্বরেন্দ্রর জন্য গর্বের বিষয়। আর আপনারা প্রত্যেকেই এই গর্বের সফল অংশিদার। আপনাদের কঠোর পরিশ্রমেই চলতি বছরে লক্ষ মাত্রার চেয়ে বেশি সেচচার্জ আদায় করতে পেরেছি , যা আগের সকল সময়ের থেকে অনেক বেশী। সুতরাং বলাই বাহুল্য প্রকল্পের কাজ যেমন বেড়েছে, তেমনি গভীর নলকুপ পরিচালনার চাপও বেড়েছে বহুগুন।

এছাড়া জনবল নিয়োগ দিতে না পারায় জনবলের ঘাটতি কর্তৃপক্ষের এত বিশাল কর্মফল বাস্তবায়নে আপনাদের জন্য কঠিন হয়ে পড়েছে যা অচিরে আমরা সমাধাণের চেষ্টা করছি। বর্তমান সরকার কৃষিবান্ধব নীতির কারণে আমাদের কৃষক ভাইয়েরা কম খরচে ফসল উৎপাদন করতে পারছেন বলে আজ দেশ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করতে পেরেছে। শুধু খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ তা নয় দেশকে আজ খাদ্য উদ্বৃত্ত পরিণত করেছে। প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার জন্য বরেন্দ্র উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ প্রতিনিয়ত তার কর্মকর্তাদের নিয়ে কাজ করে চলেছে নিরলসভাবে মাঠ পর্যায়ে।

এদিকে সমাপনী বক্তব্যে বেগম আখতার জাহান বলেন, আগামী ২১ জুন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে নৌকার মেয়র প্রার্থী এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনকে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানান এবং রাজশাহীর উন্নয়নসহ বরেন্দ্র অঞ্চলের চলমান উন্নয়ন ধরে রাখতে নৌকার মেয়র প্রার্থী লিটনের বিকল্প নাই এজন্য আগামী ২১ জুন নৌকা প্রতীকে ভোট দেওয়ার আহবান জানান বিএমডিএর কর্মকর্তা কর্মচারীদের।

মাসিক সমন্বয় সভায় উপস্থিত ছিলেন অতিঃ প্রধান প্রকৌশলী জনাব মোঃ শামসুল হোদা, অতিঃ প্রধান প্রকৌশলী জনাব ড. মোঃ আবুল কাসেম, অতিঃ প্রধান প্রকৌশলী জনাব মোঃ জাহাঙ্গীর আলম খান, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী ও সচিব (অতিরিক্ত) জনাব শিবির আহমেদ, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী জনাব মোঃ শরীফুল হক, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী জনাব মোঃ নাজিরুল ইসলাম,তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী জনাব মোঃ শহীদুর রহমান, প্রকল্প পরিচালক ও (নির্বাহী প্রকৌশলী) জনাব মো: হাবিবুর রহমান খান, প্রকল্প পরিচালক (ঊওঘউ প্রকল্প) ও তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী জনাব সুমন্ত কুমার বসাক, প্রকল্প পরিচালক জনাব রেজা মোহাম্মদ নূরে আলম সহ বরেন্দ্র উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের সদর দপ্তর ও অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী, তত্বাবধায়ক প্রকৌশলী, প্রকল্প পরিচালক, নির্বাহী প্রকৌশলী, ব্যবস্থাপক কৃষি, মনিটরিং অফিসার ও সহকারী প্রকৌশলীবৃন্দ সহ সকলে উপস্থিত ছিলেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.