বাঘায় নারী নির্যাতনকারীর শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ

0 ৯৪০

rajshahiবাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি : রাজশাহীর বাঘায় নারী নির্যাতনকারীর ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বেলা ১২টার দিকে উপজেলার হরিরামপুর ও আলাইপুর এলাকায় এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এর আয়োজন করেন হরিরামপুর উচ্চ বিদ্যালয় ও হরিরামপুর, আলাইপুরবাসি।
জানা যায়, রাজশাহী জেলার বাঘা উপজেলার আলাইপুর গ্রামের আমিরুল ইসলামের ছেলে সিঙ্গাপুর ফেরত শামীনুর রহমান (২৮) ৫ বছর যাবত প্রেম করে আসছিল ২০ বছর বয়সের এক নারীর সাথে। শামীনুর ৪ মাস আগে দেশে ফিরলে তাকে বিয়ে করার জন্য চাপ দিতে থাকে মেয়ে। এক পর্যায়ে ১৪ নভেম্বর ওই নারীকে বাড়িতে আসতে বলে শামীনুর। তার কথায় ওই নারী সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে তার বাড়িতে আসলে শামীনুর রহমান, তার ভাই এনামুল হক, বাবা আমিরুল ইসলাম তাকে মারপিট করে। পরে ছেলের বাবা থানাতে খবর দিলে রাতে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে নারীকে উদ্ধার করে থানায় আনার পর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্রে চিকিৎসা দেওয়া হয়। পরের দিন ১৫ নভেম্বর উল্লেখিত তিনজন কে অভিযুক্ত করে  বাঘা থানায় মামলা দায়ের করেন ওই নারী । মামলা দায়েরের পরের দিন ১৬ নভেম্বর পুলিশের সহায়তায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ওই নারীর পরীক্ষা সম্পূর্ণ করা হয়েছে।
এই ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতার করে শাস্তির দাবিতে হরিরামপুর উচ্চ বিদ্যালয় ও হরিরামপুর, আলাইপুরবাসীর আয়োজনে ঘন্টাব্যাপি শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী মানববন্ধন এবং বিক্ষোভ মিছিল শেষে ্এক পথসভায় বক্তব্য রাখেন হরিরামপুর উচ্চবিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি নওশাদ আলী, সাবেক সভাপতি আলাহাজ্ব মুনসুর রহমান, প্রধান শিক্ষক শাহ আলম খোকন, শিক্ষার্থী নদী আক্তার প্রমুখ।
যৌন নির্যাতনের শিকার নারী (২০) বলেন, শামীনুর রহমান দীর্ঘদিন থেকে বিয়ের লোভ দেখিয়ে বিভিন্নস্থানে যৌন হয়রানি করেছে। এমনকি আমার অন্যাত্রে বিয়ে হয়েছিল, সেখান থেকে তার কথামতো ছেড়ে নিয়েছি। কিন্তু সে আমার সাথে প্রতারণা করেছে। আমি এর সুষ্ট বিচার চায়।
বাঘা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আলী মাহমুদ বলেন, এই বিষয়ের অভিযোগের প্রেক্ষিতে মামলা রেকর্ড করা হয়েছে। আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.