বাধায়-বয়কটেও কাশ্মিরে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন, চারিদিকে সহিংসতার আশঙ্কা

0 30

ভারত-পাকিস্তান ডেস্ক: স্বায়ত্বশাসন বাতিলের পর ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরে বিরোধী দলগুলোর আপত্তি ও বয়কটের মুখেও কাশ্মিরে স্থানীয় সরকার নির্বাচনের ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হলো। নির্বাচন কমিশনের এহেন ভোট আয়োজনকে ‘সম্পূর্ণ অগণতান্ত্রিক’ বলে দাবি করছে সেখানকার বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলো।

এদিকে চলতি বছরের ৫ আগস্ট ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের পর ভারতপন্থি নেতাকর্মীসহ তিন মুখ্যমন্ত্রীকে এখনও আটকে রাখা হয়েছে।

ক্ষমতাসীন বিজেপি নেতৃত্বাধীন ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার কাশ্মিরের স্বায়ত্বশাসনের অধিকার ও বিশেষ মর্যাদা কেড়ে নিয়েছে। লাদাখ ও কাশ্মিরকে দুটি পৃথক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে পরিণত করতে পার্লামেন্টে বিল পাস হয়েছে। এ পরিস্থিতিতে পাকিস্তানের কঠোর প্রতিবাদের মুখে গেল কয়েক মাস ধরে কাশ্মিরে বিপুল সংখ্যক সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। ইতোমধ্যে স্থানীয় বহু নেতাকর্মী গ্রেফতার হয়েছেন।

গতকাল বৃহস্পতিবার কাশ্মিরের ২৬ হাজার ৬২৯ টি গ্রাম পরিষদের ৩১০ টি আসনে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে।

বিরোধীরা বলেছিল, ক্ষমতাসীন বিজেপি কাশ্মিরে নিজেদের প্রার্থীদের দিয়ে ভোটাভুটি করে ভোটকে ‘বৈধতা’ দিতে চাচ্ছে। যা তারা কখনোই হতে দেবে না।

এদিকে ন্যাশনাল কনফানেন্স, ফিপল ডেমোক্রেটিক পার্টি ও পিপলস কনফারেন্সের মতো বড় দলগুলো নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করায় প্রায় ৬০ শতাংশ গ্রাম পরিষদের আসন ফাঁকা রয়ে গেছে বলে দেশটির সংবাদমাধ্যমের খবরে জানানো হয়।

কিন্তু তাদের হুমকির মুখেও ভারত সরকার যথারীতি কাশ্মিরে ভোট সম্পন্ন করেছে। বৃহস্পতিবারের এই ভোটকে কেন্দ্র করে পুরো উপত্যকায় সশস্ত্র সহিংসতার আশঙ্কা ছড়িয়ে পড়েছে। সেখানকার নাগরিকরা চরম উৎকণ্ঠায় দিন কাটাচ্ছেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.