বিএমডিএ’ কর্তৃপক্ষের “বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কার্যক্রম” শীর্ষক প্রশিক্ষণ কর্মশালা

0 ৯৯
প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ  বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (বিএমডিএ) পদোন্নতি প্রাপ্ত উপ-সহকারী প্রকৌশলীদের সমন্বয়ে কর্তৃপক্ষের “বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কার্যক্রম” শীর্ষক ৩দিন ব্যাপি  প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত।
মঙ্গলবার (১২সেপ্টেম্বর) সকালে বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের আয়োজনে বরেন্দ্র সম্মেলন কক্ষে পদোন্নতি প্রাপ্ত উপ-সহকারী প্রকৌশলীদের নিয়ে ৩দিন ব্যাপী “বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কার্যক্রম” শীর্ষক আলোচনা ও পদোন্নতি প্রাপ্ত উপ-সহকারী প্রকৌশলীদের দক্ষতা বৃদ্ধির বিষয়ক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
প্রশিক্ষণ কর্মশালয় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান ও সাবেক সংসদ সদস্য বেগম আখতার জাহান।  প্রশিক্ষণ কর্মশালয় সভাপতিত্ব করেন বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের নির্বাহী পরিচালক জনাব প্রকৌশলী মো: আব্দুর রশীদ।
৩দিন ব্যাপি প্রশিক্ষণ কর্মশালা কোর্স পরিচালনা করেন তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী , গবেষণা ও প্রশিক্ষণ শাখা বিএমডিএ মো সমশের আলী। প্রশিক্ষণ কর্মশালা সঞ্চালনা করেন নির্বাহী প্রকৌশলী মো তরিকুল ইসলাম বিএমডিএ।
প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা বর্তমান গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দূরদশী চিন্তার কারনে আজ সারা বিশ্বে সকলের কাছে বাংলাদেশ এক রোল মডেলএ পরিনত হয়েছে। বাংলাদেশ কৃষি প্রধান দেশ এই কৃষি খাতকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্যা সরকার বিভিন্ন ভাবে কৃষিতে ভুরতুকি দিয়ে আসছে যেন কৃষকরা তাদের ফসল কোন সমস্যা ছাড়া ফলাতে পারে ।
আপনারা যারা পদোন্নতি পেয়ে এই পদে আসীন হয়েছেন, তাদের দায়িত্ব ও কর্তব্য আরো অনেক বেড়ে গেছে। আমরা শত প্রতিকুলতার মাঝেও আপনাদের পদোন্নতি দিয়েছি যাতে করে আপনাদের সামাজিক মর্যাদা কিছুটা হলেও বৃদ্ধি পায়। সেই সাথে সাথে আপনাদের প্রচেষ্টা বৃদ্ধির মাধ্যমে কর্তৃপক্ষের সকল কাজে আরো গতিশীল হবে।
উপ-সহকারী প্রকৌশলী একটা গুরুত্বপূণ পদ যাদের আন্তরিকতা ও নিষ্ঠার সাথে সার্বিক কাজে যথাযথ তদারকি কারণের ফলে প্রতিষ্ঠানের যে কোন উন্নয়ন মূলক কাজে সফলতার দেখবে। তাই মাঠ পর্যায়ে আপনাদের সব সময় কৃষকের সাথে কাজ করতে হবে।
তাই বঙ্গবন্ধু চেয়েছিলেন প্রতিটি কৃষকের মুখে হাসি ফুটাতে। তার সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সেই পথেই এগিয়ে যাচ্ছে। তাই প্রধান মন্ত্রীর হাতকে শক্তিশালী করতে হলে আপনাদের নিজ নিজ দায়িত্ব সঠিক ভাবে পালন করতে হবে এবং সব সময় কৃষকদের সাথে সুসম্পর্ক বজায় রাখতে হবে মাঠ পর্যায়ে কোন সমস্যা হলে আপনারের সবার আগে ছুটে যেতে হবে।
কর্মশালায় আরো উপস্থিত ছিলেন অতিঃ প্রধান প্রকৌশলী জনাব মোঃ জাহাঙ্গীর আলম খান, ব্যবস্থাপক (কৃষি) জনাব এটিএম রফিকুল ইসলাম সহ ৩০ জন উপ-সহকারী প্রকৌশলী বৃন্দ প্রশিক্ষণ কর্মশালায় উপস্থিত ছিলেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.