বিনা টিকেটে ট্রেনে ভ্রমণ, ৯৭ হাজার টাকা জরিমানা

0 ৮৯

ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি: টিকিট না কেটে ভ্রমণের দায়ে তিনটি আন্তঃনগর ট্রেনের ৩০৬ জন যাত্রীর কাছ থেকে ভাড়াসহ ৯৭ হাজার ৮৬০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৪ আগস্ট) রাত ৮টা থেকে শুরু করে শুক্রবার (২৫ আগস্ট) সকাল ৮টা পর্যন্ত ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা উত্তরাঞ্চলগামী রাত্রিকালীন এসব ট্রেনে অভিযান চালান পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের রাজশাহীর মহাব্যবস্থাপক (জিএম) অসীম কুমার তালুকদার।

শুক্রবার দুপুর ১২টায় পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ে রাজশাহীর মহাব্যবস্থাপক (জিএম) অসীম কুমার তালুকদার  এতথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আন্তঃনগর ওই ট্রেনগুলো হলো- ৭৫৭ নাম্বার ঢাকা থেকে পঞ্চগড় অভিমুখী আন্তঃনগর ‘দ্রুতযান এক্সপ্রেস’ ঢাকা থেকে কুড়িগ্রামগামী ৭৯৭ নাম্বার ‘কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস’ ঢাকা থেকে লালমনিরহাটগামী ৭৫২ নাম্বার ‘লালমনি এক্সপ্রেস’।

অভিযান চালানো স্টেশনগুলো হলো- ঢাকার জয়দেবপুর, টাঙ্গাইল, বঙ্গবন্ধু সেতু (পূর্ব) (পশ্চিম) উল্লাপাড়া, বড়ালব্রিজ, চাটমোহর, ঈশ্বরদী বাইপাস স্টেশন নাটোর, জয়পুরহাট, সান্তাহার, বগুড়া।

এ অভিযানে উপস্থিত ছিলেন, পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ে প্রধান বাণিজ্যিক কর্মকর্তা সুজিত কুমার বিশ্বাস, ভ্রাম্যমাণ টিকিট পরীক্ষক (টিটিই) আব্দুল আলিম বিশ্বাস মিঠু, মাসুম বিল্লাহ, গোলাম জাকিরসহ ট্রেন পরিচালক (গার্ড) এবং রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা।

জিএম অসীম কুমার তালুকদার জানান, ভ্রমণপ্রিয় ট্রেনের যাত্রীরা টিকিট কেটে ট্রেনে চড়তে দারুণ স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন। ট্রেন চলাচলের ক্ষেত্রে একটা শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করছি, টিকিট যার আছে, তার ভ্রমণ নিশ্চিত। আর যারা বিনা টিকিটের যাত্রী, তারা যেন ট্রেনে টিকিট ছাড়া ভ্রমণ না করতে পারে এ কারণে এই আকস্মিক অভিযান।

তিনি আরও জানান, ট্রেনে বিনা টিকিটের যাত্রীরা বেশিরভাগই বিভিন্ন দপ্তরের, অনেকেই সরকারি উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা, অনেকে প্রশাসনেও আছেন। তারা রীতিমতো এসি চেয়ার, কেবিনে টিকিট ছাড়া বসে! তাদের ভাবটা এমন, ট্রেনে চড়তে নাকি তাদের কোনো টিকিট লাগে না, এমন একটা ভাবসাব!। এছাড়াও রেলওয়ের অসাধু কিছু কর্মচারী আছে, যারা টিকেটবিহীন যাত্রীদের টাকার বিনিময়ে গন্তব্যস্থানে পৌঁছে দিতে সহায়তা করেন। তা রোধের চেষ্টা করা হচ্ছে।

এসব আন্তঃনগর ট্রেনে একরাতেই আকস্মিকভাবে অভিযান চালিয়ে ৩০৬ যাত্রীর কাছ থেকে ভাড়া বাবদ ৬৫ হাজার ২৪০ টাকা, জড়িমানাবাবদ ৩২ লাখ ৬২০ টাকা, মোট ৯৭ হাজার ৮৬০ টাকা রাজস্ব আদায় করা হয়েছে।

এছাড়া অন্যান্য যাত্রীবাহী ট্রেনে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। যা চলমান থাকবে বলে জানান ওই রেলওয়ে কর্মকর্তা।

Leave A Reply

Your email address will not be published.